rabbhaban

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে নারী ট্রেন চালক


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:৩৩ পিএম, ১২ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার
ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে নারী ট্রেন চালক

বাংলাদেশের প্রথম নারী ট্রেন চালক সালমা খাতুন এবার ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে ট্রেন চালাচ্ছেন। গত কয়েকদিন ধরেই তিনি এ দায়িত্ব পালন করছেন। এ সংক্রান্ত একাধিক ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড হওয়ার পর বিষয়টি আলোচনায় আসে।

কৃষক বাবা বেলায়েত হোসেন ও গৃহিনী মা তাহেরা খাতুনের ৫ সন্তানের মধ্যে চতুর্থ সালমা খাতুনের জন্ম টাঙ্গাইলে ১৯৮৩ সালের ১লা জুন। কবি নজরুল সরকারি কলেজ থেকে ২০১৫ সালে মাস্টার্স করেছেন সালমা। এর আগে বিএসএস ডিগ্রি ও বিএড কোর্স সম্পন্ন করেছেন। প্রচলিত পেশার বাইরে সালমা খাতুন নিজের ইচ্ছাতেই ট্রেন চালক হিসেবে কাজ শুরু করেন। ২০০৪ সালে তার কর্মজীবনের সূচনা হয় সহকারী লোকোমাস্টার হিসেবে। বাংলাদেশে রেলওয়েতে এখন আরও অন্তত ১৫ জন নারী ট্রেন চালক থাকলেও এর সূচনা হয়েছিল সালমা খাতুনের মাধ্যমেই।

এর আগে তিনি গণমাধ্যমকে সালমা বলেন, যখন এই পেশায় প্রবেশ করি তখন মাত্র ইন্টারমিডিয়েট পড়েছি। পরে অবশ্য আবার পড়াশোনা করেছি। তাই এই বিষয়টা খুব ভালো লাগে। আমার এক আত্মীয় বলছিল যে, আমার নাম তার বন্ধু বইয়ে পড়েছে। শুনে খুব ভালো লেগেছে। খুব কষ্ট হয়েছে পড়াশোনাটা শেষ করতে। এই পেশায় যারা আসতে চান তাদেরকে বলব, মনোবল নিয়ে তারপর আসুন। আর নারীরা এখানে আসুক। পুরুষ আর নারীর সমতাটা এই পেশাতেও হোক- সেটাই চাই।

বিবিসির বিশেষ অনুষ্ঠানমালার শত নারীতে তিনি বলেন, ‘কাজ করতে গিয়েতা সমস্যা আছে, এটা এমন এক পেশা যেটা মূলত পুরুষদের জন্যই ধরা হয়। আর এতটাই চ্যালেঞ্জিং যে পুরুষরাই হিমশিম খায়। সেখানে নারী হিসেবে আমিতো সমস্যায় পড়বোই, সমস্যা নিয়ে চলছি। নারী ট্রেনচালককে সহজে কেউ মেনে নিতে পারতো না। একজন ছেলেই এ কাজ ঠিকমতো করতে পারে না, একজন নারী কিভাবে করবে-এমন প্রশ্ন তোলেন অনেকে। এমনকি যারা আমার সাথে কাজ করে তারাও বলে তুমি কিভাবে পারবা এটা? আর যাত্রীরাতো নারী ট্রেনচালক দেখলে হতাশ হয়ে যায়, তাকিয়ে থাকে।’ কিন্তু এখন সেটার পরিবর্তন ঘটেছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর