খাদ্যের অভাবে হারিয়ে যাচ্ছে বন্দরের বানর


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:৪০ পিএম, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, বুধবার
খাদ্যের অভাবে হারিয়ে যাচ্ছে বন্দরের বানর

বসবাসের সহায়ক পরিবেশ ও খাদ্যের অভাবে নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলায় বানর দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে। বনজ ও ফলদ গাছ কমে যাওয়া এবং বসতবাড়ি বেড়ে যাওয়ায় এই সংকট দেখা দিয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শীতলক্ষ্যা নদীবেষ্টিত নারায়ণগঞ্জ বন্দর বনজ ও ফলদ গাছে পূর্ণ ছিল। এক সময় প্রচুর বানর ছিল। এখন ছোট বড় মিলে বেশ কিছু বানর দেখা যায়।

এলাকাবাসীর ধারণা, এক সময় বানরের বিচরণ বেশী ছিল। আর দেশভাগের আগে এসব অঞ্চলে অনেক হিন্দু স¤প্রদায়ের বসবাস ছিল। তারা বানরকে কলা, ফলমূল, মোয়া, মুড়ি, চিড়া খেতে দিত। বন-জঙ্গল ও শত শত গাছ থাকার কারণে বানরগুলো এলাকাজুড়ে বসবাস করত।

সরজমিনে দেখা যায়, বন্দর বাজার মোড়ে বাড়ির ছাদ, বিদ্যুতের তার ও দোকানঘরের টিনের চালায় বানর বসে আছে। বাচ্চা বানরগুলোকে বুকের সঙ্গে জড়িয়ে বড় বানরগুলো লাফিয়ে বেড়াচ্ছে। বানরগুলো বাসাবাড়ির উঁচু ছাদের কার্নিশ বেয়ে উপরে উঠছে আবার নিচে নামছে। কখনো খাবারের সন্ধানে দোকানঘরের চালার ওপর বসে থাকছে।

স্থানীয় বাসিন্দা ও দর্শনার্থীরা পাউরুটি, বিস্কুট ও কলা খাওয়ানোর চেষ্টা করছে। যানবাহন ও মানুষের চলাচলের কারণে বানরগুলো নিচেও নামছে না। লোকশূন্য বুঝেই বানর খাবার খেয়ে গাছ বেয়ে, দেয়াল টপকিয়ে চলে যাচ্ছে। আবার ক্ষুধার জ্বালায় বিভিন্ন স্থানে থাকা অন্য বানরগুলো ধাওয়া দিয়ে তাড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে। খাদ্যের অভাবে বানরগুলো র্দুর্বল হয়ে জীর্ণশীর্ণ হয়ে যাচ্ছে। এছাড়া বানরগুলো বসতবাড়ি, দোকানঘর ও কারখানার গুদামের বিভিন্ন অংশে বসবাস করছে। ফলে স্থানীয় বাসিন্দারা ঘরে-বাইরে বানরের উৎপাতের শিকার হচ্ছেন। তবে খাবারের ব্যবস্থা হলে বানরের উৎপাত বন্ধ হয়ে যাবে বলেও মনে করেন স্থানীয়রা।

বন্দর বাজার মিষ্টির দোকানদার তাপস জানান, এক সময় দেখেছি বানর দেখলে লোকজন খাবার দিত। এখন দেখি লাঠি দিয়ে তাড়িয়ে দেয়। বানর খাবারের জন্য উৎপাত করে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর