নারায়ণগঞ্জের চিকিৎসকদের জন্য মাস্ক গ্লাভস পিপিই দেওয়া হয়েছে: ডিসি


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৭:১৪ পিএম, ২৪ মার্চ ২০২০, মঙ্গলবার
নারায়ণগঞ্জের চিকিৎসকদের জন্য মাস্ক গ্লাভস পিপিই দেওয়া হয়েছে: ডিসি

করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত প্রেস কনফারেন্সে জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন বলেছেন, ‘করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণ, বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে বাধ্য করা, খাদ্য মজুদ করে সংকট তৈরি করা ও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়ার ক্ষেত্রে প্রশাসনকে সহায়তা করতে সেনা সদস্যদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, সিটি করপোরেশনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে শহরে ব্লিচিং মিশ্রিত জীবানুনাশক পানি ছিটানো সহ শহর পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে। একই সঙ্গে পরিচ্ছন্ন কর্মীদের নিরাপত্তার বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে। তাছাড়া নারায়ণগঞ্জের ডাক্তারদের জন্য প্রয়োজনীয় মাস্ক, গ্লাভস ও ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই) দেওয়া হয়েছে। ৫০ শয্যার কোয়ারেন্টিন ইউনিটকে ১০০ শয্যায় বাড়ানো হয়েছে। এছাড়াও প্রতিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৫ শয্যা করে বাড়ানো হয়েছে। শুধু তাই নয় আক্রান্ত কোন ব্যক্তি মারা গেলে তার জন্য কি ব্যবস্থা নিতে হবে তারও প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।

জসিম উদ্দিন বলেন, সব থেকে বড় সুরক্ষার জায়গা হলো জরুরী প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হবেন না। ভীড় এড়িয়ে চলুন। রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) এর নির্দেশনা মেনে চলুন।

২৪ মার্চ মঙ্গলবার সকালে জেলা প্রশাসকের নিজ কার্যালয়ে সভায় তিনি এসব কথা বলেন। এতে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল আমিন, নারায়ণগঞ্জ সিভিল সার্জন মুহাম্মদ ইমতিয়াজ ও সেনা সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

নারায়ণগঞ্জ সিভিল সার্জন মুহাম্মদ ইমতিয়াজ জানান, গত ১ মার্চ থেকে ২৩ মার্চ পর্যন্ত বিদেশ থেকে নারায়ণগঞ্জে এসেছে ৫ হাজার ৯৬৮ জন। যার মধ্যে ১৮৬ জন হোম কোয়ারেন্টিনে আছে। এখানে নতুন যুক্ত হয়েছে ৩৮ জন। তবে ১৪ জনের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার সময় শেষ হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘প্রতিটি মসজিদের কার্পেট তুলে নিবেন। সম্ভব হলে ঘরে নামাজ পড়–ন। প্রয়োজন ছাড়া কোথাও যাতায়াত করার প্রয়োজন নেই। সবাই সর্তক থাকুন।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর