paradise

৩ মাসেও শেষ হয়নি মাদানীনগর-মৌচাক ক্যানেলপাড় সড়কের কাজ


স্টাফ করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৬:৫২ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শনিবার
৩ মাসেও শেষ হয়নি মাদানীনগর-মৌচাক ক্যানেলপাড় সড়কের কাজ

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ৩নং ওয়ার্ডে একটি রাস্তার নির্মান কাজ শেষ না হওয়ায় চরম দুর্ভোগ ও ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে এলাকার কয়েক হাজার জন সাধারণকে। ৩নং ওয়ার্ডের মাদানীনগর মোড় থেকে মৌচাক বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত ক্যানেলপাড়ের প্রায় ১ হাজার ২শত ফুট এ রাস্তাটি টেন্ডার পক্রিয়া শেষ করে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন। প্রায় সাড়ে ৬ কোটি টাকা ব্যায়ে এ রাস্তা ও ড্রেন নির্মানের কার্যাদেশটি পান মেসার্স হাসমত এন্ড ব্রাদার্স। কিন্তু কার্যাদেশ পাওয়ার প্রায় ৩ মাস অতিবাহিত হলেও খানাখন্দকে ভরা এ রাস্তাটির নির্মান কাজ শেষ না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসী।

শনিবার ২২ সেপ্টেম্বর সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ৩নং ওয়ার্ডের মাদানীনগর মোড় থেকে মৌচাক বাসষ্ট্যান্ড পর্যন্ত ক্যানেলপাড়ের রাস্তাটির প্রায় ২শত ফুট ড্রেন নির্মান করে ফেলে রেখেছেন। কিন্তু সিটি কর্পোরেশন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কাজ করছে না। এতে ওই এলাকার লোকজন চলাচলে চরম দুর্ভোগ ও ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

গণমাধ্যম কর্মী সাহাদাত হোসেন বলেন, এ রাস্তাটি একটি গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা। এ রাস্তাটি দ্রুত নির্মাণ কাজ শেষ করে জনগণকে এ চরম দুর্ভোগ থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন মেয়র আইভির হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তিনি।

আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ জাহাঙ্গীর আলম হেলাল বলেন, আগামী ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচন। তাই নির্বাচনের পূবেই এ রাস্তাটির নির্মাণ কাজ শেষ করা হলে আমাদের সরকার লাভবান হবে। মেয়র যেন দ্রুত এ রাস্তাটির নির্মান কাজ শেষ করার ব্যবস্থা করেন।

নির্মান কাজ বন্ধের বিষয়ে বক্তব্য নেওয়ার জন্য নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসাসর্স হাসমত এন্ড ব্রাদার্স সত্তাধিকারী মোঃ হাসমত আলীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহজালাল বাদল জানান, মাদানীনগর মোড় থেকে মৌচাক বাসষ্ট্যান্ড পর্যন্ত ক্যানেলপাড়ের রাস্তাটির সাড়ে ৬ কোটি ব্যায়ে ১২ শত ফুট রাস্তটির প্রায় ২শত ফুট ড্রেন নির্মান কাজ শেষ করে ফেলেছেন। ডিএনডি প্রকল্পের দায়িত্বে থাকা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী দাবী করেছেন, এ রাস্তারটি পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গা। এ নিয়ে একটু ঝামেলা দেখা দিয়েছে। এ বিষয়ে ২৩ সেপ্টেম্বর সেনাবাহিনীর সাথে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের বৈঠক আছে। ঐ বৈঠকে সিদ্ধান্ত হবে এরাস্তার উনন্নয়ন কাজ সেনাবাহিনী না নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন বাস্তবায়ন করবে। তিনি এলাকাবাসীকে কিছুদিন ধৈর্য ধারণ করার আহ্বান জানান।  

আপনার মন্তব্য লিখুন:
rabbhaban
আজকের সবখবর