rabbhaban

নারায়ণগঞ্জের অনেক সড়কে সারা বছরই অমাবস্যা


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:৩২ পিএম, ১২ মে ২০১৯, রবিবার
নারায়ণগঞ্জের অনেক সড়কে সারা বছরই অমাবস্যা ছবিটি অনলাইন থেকে সংগৃহিত।

চন্দ্রের হিসেবে প্রতি মাসে অমাবস্যা আসে মাত্র একবার। কিন্তু নারায়ণগঞ্জ শহরের অমাবস্যা প্রতি রাতেই। সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসার আগেই অন্ধকার হয়ে যায় রাস্তাগুলো। নগরীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক, অলিগলি সহ বিভিন্ন এলাকায় জ্বলে না সড়ক বাতি। কোথাও ল্যাম্পপোস্ট থাকলেও জ্বলে না বাতি। এতে করে চুরি, ছিনতাই সহ বিভিন্ন দুর্ঘটনা ঘটে চলেছে। ফলে প্রতিনিয়ত ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। তবে সড়ক বাতি লাগানোর বিষয়ে কোন উদ্যোগ দেখা যায় না নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন কিংবা প্রশাসনের।

সরেজমিনে রাতে শহরের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে দেখা যায়, নারায়ণগঞ্জ-পাগলা-ঢাকা পুরাতন সড়কটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। রাত ১২টা কি এ সড়কে গাড়ি যাতায়াত করে। তবে  মানুষের বেশি যানবাহন চলাচল করে। যার মধ্যে কলকারখানা সহ শিল্প প্রতিষ্ঠানের পণ্য আমদানী ও রপ্তানিকৃত পণ্যের বহনকারী গাড়ির সংখ্যা বেশি। নগরীতে যানজট যেন সৃষ্টি না হয় এজন্য দিনে যানবাহন চলাচল কম থাকে। তবে সেটা রাতের বেলায় কয়েকগুন বেড়ে যায়। যানবাহনের সঙ্গে বাড়ে গাড়ির গতিও। ফলে যেকোন সময় যেকোন দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। তাছাড়া রাস্তায় বাতি না থাকায় পিছন থেকে পণ্য চুরির অভিযোগও শোনা যায়। এছাড়াও উত্তর চাষাঢ়া নগরীর গলাচিপা, কলেজ রোড, টানাবাজার, মিনাবাজার, উকিলপাড়া, নন্দিপাড়া সহ বিভিন্ন এলাকায় সড়ক বাতি থাকলেও বেশির ভাগই জ্বলে না।

চাষাঢ়া এলাকার রিকশা চালক শফিক মিয়া বলেন, রাত ৮টার পর থেকে নগরীতের ট্রাক প্রবেশ শুরু হয়। আবার ট্রাক বের হয়ে যায়। ওইসময় গাড়িগুলো খুব দ্রুত গতিতে চলাচল করে। ছোট যানবাহনগুলোর দিকে নজর দেয় না। আর একটা পর একটা দুর্ঘটনা ঘটে। গাড়িগুলো ছোট যানবাহনকে চাপা দিয়েই দ্রুত পালিয়ে যায়। মূলত অন্ধকার থাকায় এ দুর্ঘটনাগুলো ঘটে। আর সহজে পালিয়ে যেতেও পারে।

ট্রাক চালক সোলেমান মিয়া বলেন, রাস্তা অন্ধকার থাকলে গাড়ির সামনে কে আছে দেখা যায় না। গাড়ি লাইট থাকলেও দূরে কোন মানুষ আছে নাকি গাড়ি থামিয়ে রাখা হয়েছে সেটা বুঝা যায় না। রাস্তায় বাতি থাকলে আগে থেকে বুঝে সাবধানে গাড়ি চালানো যায়। যার জন্যই দুর্ঘটনা ঘটে।

তিনি আরো বলেন, রাস্তায় বাতি না থাকায় প্রায়ই ট্রাকের মালামাল চুরি হয়। চোরের দল অন্ধকারে গাড়ি আস্তে চালিয়ে আসলে কৌশলে উঠে পরে। আর মূল্যবান জিনিপত্র নিয়ে নেমে পরে। কিছুদিন আগে ঢাকা থেকে ফার্মের মুরগী নিয়ে নারায়ণগঞ্জের দিগুবাবু বাজার যাচ্ছিল। কিন্তু মাসদাইর এলাকা থেকে কয়েকটি যুবক গাড়িটির পিছু নেয়। পরে কৌশলে গাড়িতে উঠে ২০ থেকে ২৫টি মুরগী চুরি করে নিয়ে যায়।

চাষাঢ়া এলাকার পান দোকানদার সজিব বলেন, কয়েক বছর ধরে এ রাস্তার লাইট নষ্ট হয়ে আছে। একটি জ্বললে আরো ৫টা বন্ধ হয়ে থাকে। কেউ কোন কিছু বলে না এভাবে চলছে।

তিনি আরো বলেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের এলাকায় আছে কিছু বাতি আর কিছু আছে সড়ক ও জনপথের। তবে দুইজনই একের অন্যকে দোষারোপ করে বাতি লাগানো হচ্ছে না। মাঝে মধ্যে সিটি করপোরেশন কয়েকটি বাতি লাগিয়ে দিলেও কয়দিন যেতে না যেতেই নষ্ট হয়ে যায়। পরে আবার অন্ধকার হয়ে থাকে। কিন্তু সড়ক ও জনপদের পক্ষ থেকে তেমন কোন উদ্যোগ দেখা যায় না। অবিলম্বে এ সড়ক বাতির ব্যবস্থা করা প্রয়োজন।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর