rabbhaban

হকার বসাতে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করলে অ্যাকশন : এসপি


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:০৩ পিএম, ২১ জুলাই ২০১৯, রবিবার
হকার বসাতে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করলে অ্যাকশন : এসপি

নারায়ণগঞ্জের আলোচিত হকার ইস্যুতে জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ বলেন, হকার বসবে না। বঙ্গবন্ধু সড়কে কোন হকার বসবে না। যদি কেউ বসার চেষ্টা করে কিংবা ফুটপাত বসানোকে কেন্দ্র করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করে তাহলে তার বিরুদ্ধে কঠোর অ্যাকশন নেয়া হবে। হকারের নাম কেউ চাঁদাবাজি করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর অ্যাকশন নেয়া হবে।

২১ জুলাই রোববার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের সার্বিক পরিস্থিতি ও বর্তমান ছেলে ধরা গুজব ছড়ানোকে কেন্দ্র করে এক ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

হারুন অর রশিদ বলেন, আমাদের পরিস্কার ঘোষণা, সাইনবোর্ড থেকে শুরু করে চাষাঢ়া হয়ে বঙ্গবন্ধু সড়ক, ১নং রেল গেইট ও ২ নং রেলগেইট কোথাও কোনো ফুটপাত বসেও নাই আর বসার চেষ্টাও কেউ করে নাই। যারা বসার চেষ্টা করবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আশা করি সবাই আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে বঙ্গবন্ধু সড়ক শুরু করে গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় ফুটপাত বসবে না।

তিনি আরও বলেন, কেউ যদি ফুটপাত বসানোকে কেন্দ্র করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর অ্যাকশন নেয়া হবে। আপাতত কোন হকার বসবে না। যদি কোন চাঁদাবাজ হকারের নাম ধারণ করে বসার চেষ্টা করে তাহলে এসকল চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর অ্যাকশন নেয়া হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন, নারায়ণগঞ্জ সদর থানা ওসি কামরুল ইসলাম ও ফতুল্লা থানা ওসি আসলাম হোসেন সহ প্রমুখ।

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ বলেন, সাংবাদিক ভাইদের কাছ থেকে মাদকের লিস্ট পাইনি। আমাদের কাছে যে তথ্য আছে সেই তথ্য অনুযায়ী আমরা অ্যাকশনে যাচ্ছি। কিন্তু আপনারা বলেছিলেন, আপনাদের কাছে যে তথ্য আছে সে তথ্য আমাদের দিবেন। যারা এলাকায় মাদক ব্যবসায় জড়িত, যারা দীর্ঘদিন ধরে মানুষের ভূমি দখল করে খাচ্ছেন এরকম নাম দিবেন বলেছিলেন। আশা করি সেই নাম পেয়ে যাব।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর