rabbhaban

গুজব গুঞ্জনের পর ডেঙ্গু আতঙ্কে নারায়ণগঞ্জ


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ১০:০৫ পিএম, ০৭ আগস্ট ২০১৯, বুধবার
গুজব গুঞ্জনের পর ডেঙ্গু আতঙ্কে নারায়ণগঞ্জ

নারায়ণগঞ্জে ধারাবাহিকভাবে গুজব ও গুঞ্জনের  পর ডেঙ্গু আতঙ্কে ভর করেছে নারায়ণগঞ্জে। এর একটি অন্যটির চেয়ে চেয়ে কোন অংশে কম নয়। ইতোমধ্যে গুজব ও গুঞ্জনের রেশ কাটতে না কাটতে নতুন করে ডেঙ্গু নামক আতঙ্কের আবির্ভাব হয়েছে। সেই আতঙ্ক রাজধানীর মত নারায়ণগঞ্জেও এখন মহামারি আকার ধারণ করেছে। ধীরে ধীরে এর প্রকোপ যত বাড়ছে আতঙ্ক তত বাড়ছে। যেকারণে জনগণ এখন ঘরে বাইরে কোথাও নিরাপদ নয়, সবদিকেই বিপদ।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, গুজবের গণপিটুনি কিংবা ছেলে ধরার মত আতঙ্কে ঘরের বাইরে বের হতে ভয় পেত জনগণ। কিন্তু এখন ডেঙ্গু রোগ ছড়ানো এডিস মশা তো ঘরের ভেতরেই আক্রমণ করছে। তাই বাইরে ভেতরে কোথাও নিরাপদ নয় জনগণ। সর্বত্রই রয়েছে আতঙ্ক।

নারায়ণগঞ্জের হাসপাতালগুলোতে বেড়ে চলেছে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। এছাড়া ১৫ দিনের ব্যবধানে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে নারায়ণগঞ্জের বাসিন্দা ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। যার মধ্যে একজন নারায়ণগঞ্জের একটি বেসরকারী ক্লিনিকে আর অপর ২জন রাজধানীর ২টি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন। এদিকে চলতি সপ্তাহে যেসকল রোগী সরকারি দু’টি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তারা বেশীরভাগই নারায়ণগঞ্জেই এডিশ মশার কামড়ে আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে রাজধানীর ন্যায় নারায়ণগঞ্জেও ডেঙ্গুর প্রকোপ বৃদ্ধির আশঙ্কা করছেন চিকিৎসকরা।

গত ৬ জুলাই শহরের ইসদাইর এলাকার বাসিন্দা কায়কোবাদ সিদ্দিকীর পুত্র কবীর সালেহীন (৩৮) ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়। পরে ১১ জুলাই রাতে তিনি মারা যান। শাওন কবীর সালেহীন ঢাকার সিলভা মেথড নামের একটি প্রতিষ্ঠানে হেড কন্ট্রোলার হিসেবে চাকরি করতেন। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ এক্স ক্যাডেটস অ্যাসোসিয়েশন নারায়ণগঞ্জ ইউনিটের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিল।

২৫ জুলাই বেলা ১১টায় রাজধানীর মহাখালী এলাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ফতুল্লার দেলপাড়া আইডিয়াল স্কুলের প্রধান শিক্ষক বেলাল হোসেন মিন্টু (৪৫)। ৫ দিন আগে তিনি ওই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

সর্বশেষ ২৮ জুলাই নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার বক্তাবলীর ছমিরনগর এলাকার জসিম উদ্দিনের ছেলে শান্ত ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করে।

এর আগে নারায়ণগঞ্জে ছেলে ধরা গুজবে গণপিটুনির ধারাবাহিক ঘটনায় চারদিকে তোলপাড় হয়েছে। গুজব আতঙ্কে গণপিটুনিতে ৭ জন আহত হলেও একজন মৃত্যুবরণ করেছে। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে এবার লোডশেডিংয়ের গুজব ছড়িয়েছে। গুজবে বলা হচ্ছে, ২৪ ঘণ্টা বিদ্যুৎ থাকবেনা অথবা ৩ দিন বিদ্যুৎ থাকবেনা। দুটি গুজবে পুরো জেলা জুড়ে গুঞ্জন আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ছে। এই গুজব ও গুঞ্জন ক্রমশ মহামারি আকার ধারণ করেছে। এতে করে আতঙ্ক চারদিকে বিরাজ করছে।

পুলিশ প্রশাসন ছেলেধরা গুজবের মত বিষয়ে কান দিনে নিষেধ করে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। এরুপ গুজবে একদিকে অভিভাবকরা তাদের সন্তানদের নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়ছেন। অন্যদিকে গণপিটুনির ভয়ে অনেকে ঘর থেকে বাইরে বের হতে ভয় পাচ্ছেন। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে নতুন করে আরেক আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। ডেঙ্গু নামক আতঙ্ক চারদিকে ক্রমশ ছড়িয়ে পড়ছে।

নগরবাসী বলছেন, গুজবের আতঙ্কে এতোদিন ঘর থেকে বাইরে বের হতে ভয় লাগতো। কিন্তু এখন তো ঘরেও নিরাপদ নয়। কারণ ডেঙ্গু রোগের আতঙ্ক ঘরে সবচেয়ে বেশি। তাই ধরে বাইরে কোথাও নিরাপদ নই। সব দিকেই আতঙ্ক আর আতঙ্ক। এই দুর্বিষহ অবস্থা থেকে করে পরিত্রান পাবো।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর