rabbhaban

ঈদ ঘিরে পলিথিনের নগরীতে পরিণত হচ্ছে নারায়ণগঞ্জ শহর


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:২৯ পিএম, ০৯ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার
ঈদ ঘিরে পলিথিনের নগরীতে পরিণত হচ্ছে নারায়ণগঞ্জ শহর

নারায়ণগঞ্জের প্রধান সড়কগুলোর একটি হচ্ছে বঙ্গবন্ধু সড়ক। ঈদকে কেন্দ্র করে সড়কের দুই পাশের অবস্থিত মার্কেট ও বিপনীবিতানগুলোর ফেলে দেওয়া পলিথিনের কারণে ড্রেনের মুখ বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি পলিথিনের সড়কে পরিণত হয়েছে। যে কারণে অল্প বৃষ্টিতেই শহরে তৈরী হচ্ছে জলাবদ্ধতা এতে করে নগরবাসীকে পোহাতে হচ্ছে চরম দুর্ভোগ।

জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জ শহরের অধিকাংশ মার্কেট ও বিপনীবিতানগুলো রয়েছে বঙ্গবন্ধু সড়কের দুই পাশে অবস্থিত। পবিত্র ঈদুল আযহা সন্নিকটে হওয়ায় ঈদকে কেন্দ্র করে জমে উঠেছে নারায়ণগঞ্জ শহরের মার্কেট ও বিপনীবিতানগুলো। আর এসব বিপনীবিতান ও মার্কেটে দিনভর বিকিকিনি শেষে পলিথিনগুলো ফেলে দেওয়া হচ্ছে বঙ্গবন্ধু সড়কের উপর ও এর আশপাশের।

বিপনীবিতানগুলোর সাথে রয়েছে হকারদের উৎপাত। দিনের বেলা পুলিশের তৎপরতায় ঠিকমত বসতে না পারলেও সন্ধার পর থেকে স্থায়ীভাবে বসতে শুরু করে হকাররা। এরপর মধ্য রাত পর্যন্ত চলে তাদের বেঁচাকেনা। চলে যাওয়ার সময় তাঁরাও অতিরিক্ত পলিথিন ফুটপাত আর রাস্তার উপর ফেলেন। আর ফেলে দেওয়া এসব পলিথিনের কারণে অনায়াসেই ড্রেনের মুখ বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।

ফলে অল্প বৃষ্টিতেই শহরে তৈরী হচ্ছে জলাবদ্ধতা। যা ঘন্টারপর ঘন্টা স্থায়ী হচ্ছে। সড়কের উপর ও ফুটপাতে ফেরে দেওয়া পলিথিনের কারণে শহরের সৌন্দর্য যেমন নষ্ট হচ্ছে। তেমিন জলাবদ্ধতার কারণে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে নগরবাসীকে।

এ প্রসঙ্গে পথচারী ইউসুফ নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, শহরে একটু বৃষ্টি হলে জলাবদ্ধতা তৈরী হয়। এসবের মূল কারণ হচ্ছে রাস্তার উপর পরিথিন ফেলে ড্রেন বন্ধ করা। অফিস থেকে রাতে যখন বাসায় যাই তখন দেখতে পাই সড়কের আসল অবস্থা। সারা ফুটপাত আর সড়ক পলিখিনে ভরে থাকে। এর কারণেই শহরে জলাবদ্ধতা হয়।

আব্দুল্লাহ বলেন, শহর যেমন আমার তেমনি পরিষ্কার রাখার দায়িত্ব আমাদের। রাতে কোনো কারণে শহরে আসলে দেখা যায় ভয়াবহ অবস্থা। ফুটপাত আর সড়ক পলিথিনে ভরে থাকে। মার্কেটে যারা কাজ করেন তাদের কাছে অনুরোধ জানাবো সবাই সচেত হন। আমরা যারা সড়কে পলিথিন ফেলছি সকালে যখন আবার শহরে আসব আমাদেরকেই ভোগান্তিতে পরতে হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর