rabbhaban

নির্মাণ সরঞ্জাম রেখে ফুটপাত দখল, পথচারীদের ভোগান্তি


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:২৭ পিএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শনিবার
নির্মাণ সরঞ্জাম রেখে ফুটপাত দখল, পথচারীদের ভোগান্তি

নারায়ণগঞ্জ শহরের ব্যস্ততম সড়ক হচ্ছে বঙ্গবন্ধু সড়ক। এই সড়কের দুই পাশে অবস্থিত শহরের অধিকাংশ মার্কেট। যে কারণে এই সড়কে পায়ে হেটে চলাচল করা মানুষের সংখ্যা অগণিত। কিন্তু ব্যস্ততম এই সড়কের ফুটপাত দখল করে ইট রেখে তা বন্ধ করা হয়েছে। এতে করে চরম দুর্ভোগে পরেছে ফুটপাত দিয়ে চলাচল করা পথচারীরা।

২১ সেপ্টেম্বর শনিবার বিকেলে সরেজমিনে দেখা যায় এমন চিত্র। বঙ্গবন্ধু সড়কে অবস্থিত মেডিনোভা হাসপাতালের পাশে অবস্থিত পাট অধিদপ্তরের মূখ্য পরিদর্শক নারায়ণগঞ্জ (উত্তর) এর কার্যালয় ও সহকারী পরিচালকের কার্যালয়ের পাশে থাকা একটি পুরাতন ভবন ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে। ভেঙ্গে ফেলা সেই ভবনের ইট ফুটপাতের উপর রাখা হয়েছে। পথচারীরা যাতে একেবারে ফুটপাত ব্যবহার করতে না পারে এ জন্য বাঁশ ও রশি দিয়ে ফুটপাতের চারদিকে বেড়া দেওয়া হয়েছে। প্রায় এক সপ্তাহ ধরে এভাবেই ফুটপাত দখল করে রাখা হয়েছে ফুটপাত। এতে করে চরম দুর্ভাগে পরেছে সাধারণ পথচারী।

এ প্রসঙ্গে পথচারী অনিক নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, সিটি কর্পোরেশন ফুটপাত দখল মুক্ত করতে অনেক সচেষ্ট। এছাড়া জেলা পুলিশের প্রশংসা না করলেই নয়। তাদের জন্যই হকারদের উৎপাত এখন অনেক কম। কিন্তু এক সপ্তাহ ধরে এখাবে ফুটপাত দখল করে রেখেছে। কিন্তু কেউ কিছু বলছে না এটা অত্যন্ত হতাশাজনক। হকারের বিরুদ্ধে কর্তৃপক্ষ যেমন কঠোর অবস্থানে আছে। তেমনি যাতে এসব দখলদারদের বিরুদ্ধেও কঠোর অবস্থানে যায়।

মোস্তফা হোসেন নিউজ নারয়ণগঞ্জকে বলেন, গত এক সপ্তাহ ধরে দেখছি এমন অবস্থা। ভবন ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে ভালো কথা তাঁরা সাথে সাথে ইট সরিয়ে ফেলতে পারে। কিন্তু ফুটপাত যেন তাদের নিজেদের। তাই এত দিন ধরে ফুটপাত বন্ধ করে রাখছে। এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন। এছাড়া তাদের হুস আসবে না। কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ জানাবো যাতে এসব দখলদারদের জেল-জরিমানা করা হয়। একমাত্র তাহলেই এদের হুস ফিরে আসবে।

এ প্রসঙ্গে কথা বলার জন্য নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী কর্মকর্তা এএফএম এহতেশামূল হকের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর