rabbhaban

অবৈধভাবে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে চলাচলরত উৎসব ট্রান্সপোর্ট বন্ধ


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৩:১৯ পিএম, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার
অবৈধভাবে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে চলাচলরত উৎসব ট্রান্সপোর্ট বন্ধ

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে চলাচল করা উৎসব ট্রান্সপোর্টের বাস বন্ধ হয়ে গেছে। ১৬ অক্টোবর বুধবার সকাল থেকে এ পরিবহনের বাস আর চলছে না।

এর আগে গত ২৩ সেপ্টেম্বর হঠাৎ করেই উৎসব পরিবহন তাদের নাম পরিবর্তন করে। নতুন নাম দেয় উৎসব ট্রান্সপোর্ট। এর পর থেকেই পরিবহনের বাসগুলো ট্রান্সপোর্টের নামে চলছিল।

উৎসব ট্রান্সপোর্টের পরিচালক কাজল মৃধা নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘বুধবার থেকে বাস বন্ধ। কিন্তু কারণটা কামাল  মৃধা বলতে পারবে।’

উৎসব পরিবহনের চেয়ারম্যান ও প্রতিষ্ঠাতা কামাল মৃধা নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘উৎসব পরিবহনের বৈধ চেয়ারম্যান ও মালিক আমি। গত ২৩ সেপ্টেম্বর পুলিশ এটার সুরহার করে দেয়। সেদিনই পরিবহনের বাসগুলোর নাম পাল্টে উৎসব ট্রান্সপোর্ট করা হয়। অথচ তাদের রোড পারমিট পরিবহনের নামে। এটা আমাদের জন্য বেশ বিব্রতকর ছিল। তাছাড়া তারা বিনা অনুমতিতে বিনা রোড পারমিটে বাসগুলো চালাচ্ছিল। বুধবার সেটা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আশা করছি দ্রুত ৩০ টাকা ভাড়ায় এ বাস চালু হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘‘২০০২ সালে জুলাইতে উৎসব কোম্পানীটি চালু হয়। তখনি ভাড়া দুই টাকা কমিয়ে ১০ টাকায় পরিচালনা করেছি। এর পর থেকেই শুরু হয় বিভিন্ন মামলা। যখন মামলা একের পর এক হতে থাকে তখনি আমি আর সামলিয়ে উঠতে পারি নাই। বাধ্য হয়ে বিদেশ চলে যাই। বিভিন্ন মামলায় ও ব্যক্তিগত সমস্যার কারণে ২০০৫ সালে আমার ভাগিনা কাজল মৃধাকে ম্যানেজার হিসেবে নিয়োগ দিয়ে নিউইয়র্ক চলে যাই। বিদেশে থাকা অবস্থায় সকল মামলা শেষে দেশে ফিরে এসে কাজল মৃধাকে ব্যবসার হিসাব চাইলে সে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের দিয়ে ভয় দেখায় এবং আমার ব্যবসার আয় থেকে দোকান, গাড়ি, ফ্ল্যাট ইত্যাদি আমার নামে ক্রয় না করে নিজের নামে ক্রয় করে। পরবর্তীতে দেশে এসে দেখি আমার কোম্পানি দখল হয়ে গেছে।’’

উৎসব প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘এখন অনেক এগিয়ে গেছি আমরা। তাই বর্তমান উৎসবকে ঢেলে সাজাতে হবে। সিট, কালার এবং ডিজাইন আপগ্রেড করা হবে। ১৭ বছর হয়ে গেছে গাড়িগুলোর। বিআরটিএর অনুমতি নিয়েই সব কিছু করা হবে। তবে সামনে ইলেক্ট্রিক গাড়ি নামানোর পরিকল্পনা রয়েছে। আমার সব পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হয়।’’

তিনি বলেন, উৎসব কাউকে চাঁদা দেয় না এবং লাভ করার জন্য তৈরী হয়নি। আমি চলে যাওয়ার পরই তা মালিক সমিতির মাধ্যেমে পরিচালিত হয়।

তবে এই উৎসবকে সামনের উৎসবের সঙ্গে কল্পনা করা যাবে না বলে মত দেন তিনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর