rabbhaban

নারায়ণগঞ্জ রেলওয়ের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ শুরু


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৩:৫৩ পিএম, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার
নারায়ণগঞ্জ রেলওয়ের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ শুরু

নারায়ণগঞ্জে অবৈধভাবে দখল করে গড়ে উঠা শতাধিক ছোট বড় স্থাপনা গুড়িয়ে দিয়েছে রেলওয়ে কর্তপক্ষ। ১৬ অক্টোবর বুধবার বেলা ১১টা থেকে ঢাকা রেলওয়ের ভূসম্পত্তি বিভাগের কর্মকর্তা নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে ওই উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়। এসময় বিপুল সংখ্যক আনসার ও পুলিশ মোতায়ন ছিল।

ঢাকা রেলওয়ের ভূসম্পত্তি বিভাগের কর্মকতা নজরুল ইসলাম জানান, রেলওয়ের জায়গা অবৈধ দখল হওয়ায় ৫ দিনব্যাপী উচ্ছেদ অভিযানের প্রথম দিন ছিল বুধবার। রেল স্টেশনের পাশ্চিমপাশে রেলওয়ের প্রায় ৩ একর জায়গা দখল করে গড়ে একটি টিনসেড মার্কেট, ফলের দোকান, জুতার দোকান, রেডিমেট জামাকাপড়ের দোকান, স্কুল ব্যাগের দোকান, বস্তি ঘর সহ প্রায় কাচাপাকা কয়েখ শতাধিক স্থাপনা গুড়িয়ে দেয় হয়। ধারাবাহিক ভাবে আরো চারদিন এ অভিযান পরিচালনা করা হবে। কেন্দ্রীয় রেলস্টেশনের আশে পাশে এক হাজারের বেশি অবৈধ স্থাপনা রয়েছে। এসব স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার জন্য দুই মাস আগে থেকে কয়েকবার মাইকিং করা হয়েছে। কিন্তু সরিয়ে না নেওয়ায় বুধবার সব ভেঙে ফেলা হয়। ভেঙে ফেলার আগেও তাদের দুই ঘণ্টা সময় দেওয়া হয়।

তিনি আরো জানান, রেলওয়ের জায়াগা দখল করে গড়ে উঠা একটি মন্দিরের একাংশ ভেঙ্গে দেয়া হয়। বাকি স্থাপনা সরিয়ে নেয়ার জন্য মন্দির কমিটিকে সময় দেয়া হয়। উচ্ছেদকৃত জমি যাতে পুনরায় দখল হয়ে না যায় সেজন্য মনিটরিং করা হবে। কারণ নারায়ণগঞ্জ রেলস্টেশন প্রায় ১শ বছরের পুরনো স্টেশন। এটি ডাবল লাইন করার জন্য প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে। ওই প্রকল্প দ্রুত বাস্তবায়নের জন্যই অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হচ্ছে।

রেলওয়ের জায়গার বাসিন্দা হাজেরা বেগম বলেন, ভেঙে ফেলবে সে জন্য কয়েক মাস আগে মাইকিং করেছে। কিন্তু আজকে সকালে হঠাৎ করে এসে উচ্ছেদ শুরু করেছে। আমাদের মালামাল সরিয়ে নেওয়ার জন্য এক ঘণ্টাও সময় দেয়নি। এতে আমাদের কয়েক লাখ টাকার আসবাবপত্র সহ মূল্যবান সম্পদ নষ্ট হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জের কেন্দ্রীয় রেল স্টেশনের স্টেশন মাস্টার গোলাম মোস্তফা বলেন, সকাল থেকে উচ্ছেদ অভিযানে রেলওয়ের ৩৫ থেকে ৪০ শতাংশ জায়গা দখলমুক্ত করা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর