rabbhaban

অর্থের জন্য না, চাকরিটি উপভোগ করতো প্রধান শিক্ষিকা মাহমুদা


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:২৮ পিএম, ০৯ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার
অর্থের জন্য না, চাকরিটি উপভোগ করতো প্রধান শিক্ষিকা মাহমুদা

“আমি একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ি। সংসারটি খুব সাজানো গোছানো ছিল। দুই মেয়েকে নিয়ে খুব সুখে সংসার করছিলাম। ওকে (নিহত স্ত্রী মাহমুদা) বলেছিলাম চাকরিটা করো না। ও বিএড ডিগ্রীধারী ছিল। আসলে ও চাকরিটা খুব এনজয় করত। অর্থের জন্য নয়। পেশাটাকে খুব ভালোবাসত সে”।

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়কে পুলিশ লাইনসের সামনে পুলিশ লাইনস স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা মাহমুদা বেগম অটোরিকশার চাপায় নিহত হওয়ার পরদিন ৯ নভেম্বর স্বামী ব্যবসায়ী মাহাবুব আলম এভাবেই কথাগুলো বলেন।

শনিবার দুপুরে মাসদাইর এন এস টাওয়ার তিন তলা শোকার্ত পরিবারকে সমবেদনা জানাতে হাজির হন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা বারিক।

জানা গেছে, শুক্রবার সন্ধ্যায় ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়কে পুলিশ লাইনসের সামনে পুলিশ লাইনস স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা মাহমুদা বেগম অটোরিকশার চাপায় নিহত হওয়ার ঘটনায় পুরো পরিবার বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। শিক্ষিকার মাহমুদার স্বামী মো. মাহাবুব আলম ব্যবসায়ি। সংসারে দুটি সন্তান দুজনেই মেয়ে। বড় মেয়ে সুমাইয়া ফারহা তিথি ঢাকা সেন্ট্রাল ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ প্রথম বিভাগের ছাত্রী ও ছোট মেয়ে লাবিবা তাহসীন শহরের মাসদাইর গভমেন্ট গার্লস স্কুলের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর