কঠোর আন্দোলনে জেলা প্রশাসনের কর্মচারীরা


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:৪২ পিএম, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার
কঠোর আন্দোলনে জেলা প্রশাসনের কর্মচারীরা

ধীরে ধীরে কঠোর আন্দোলনের দিকে ধাবিত হচ্ছে বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসকের কার্র্যালয়, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় ও সহকারী কমিশনারের (ভূমি) কার্র্যালয়ে কর্মরত ৩য় শ্রেণির কর্মচারীরা। পদ পদবী পরিবর্তন এবং বেতন গ্রেড উন্নয়নের দাবীতে টানা তিন দিন ধরে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি ও অফিস চত্ত্বরে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে আরছেন।

২৭ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি ও অফিস চত্ত্বরে অবস্থান কর্মসূচির শেষ দিন ছিল। তাদের দাবী না মানা হলে আগামীতে আরও কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা দেয়া হবে জানানো হয়েছে।

এর আগে গত ২০ জানুয়ারী থেকে ২১ জানুয়ারী পর্যন্ত ২ কর্মবিরতি ও অফিস চত্ত্বরে অবস্থান, গত ২২ থেকে ২৩ জানুয়ারী পর্যন্ত ৩ ঘন্টা কর্মবিরতি ও অফিস চত্ত্বরে অবস্থান ও গত ২৭ থেকে ২৮ জানুয়ারী পর্যন্ত ৪ ঘন্টা কর্মবিরতি ও অফিস চত্ত্বরে অবস্থান এবং সবশেষ ২৫ ফেব্রুয়ারী থেকে ২৭ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি ও অফিস চত্ত্বরে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে। এভাবে তারা ক্রমান্বয়েই কঠোর কর্মসূচির দিকে তারা ধাবিত হচ্ছে।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখা কালেক্টরেট সহকারী সমিতির উদ্যোগে ৩য় শ্রেণির কর্মচারীরা প্রত্যেক কর্মসূচিতেই সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেছেন। সারাদেশের মতো নারায়ণগঞ্জেও টানা তিন দিবস ধরে কর্মবিরতি ও অফিস চত্ত্বরে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে।

কর্মসূচি প্রসঙ্গে নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখা কালেক্টরেট সহকারী সমিতির সভাপতি ও জেলা নাজির প্রাণকৃষ্ণ চন্দ্র চন্দ্র বলেন, বাংলাদেশ কালেক্টরেট সহকারী সমিতি’ (বাকাসস) কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশনা অনুযায়ী সচিবালয়ের ন্যায় আমাদের পদবি পরিবর্তন এবং আমাদের বেতন গ্রেড পরিবর্তনের দাবী বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ঘোষিত ৩মাসের কর্মসূচির অংশ হিসেবে পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি পালন করা হয়েছে। আমাদের দাবী পূরণ না হলে কেন্দ্রীয় কমিটির কর্মসূচি অনুযায়ী আন্দোলন অব্যাহত রাখা হবে। এটা আমাদের যৌক্তিক দাবী। আমরা জনগণকে নিরলসভাবে সেবা দিয়ে থাকি। অথচ আমাদের পদবী পরিবর্তন করা হয় না।

পূর্ণ দিবস কর্মসূচি পালনকালে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখা কালেক্টরেট সহকারী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও ফতুল্লা রাজস্ব সার্কেলের নামজারী সহকারী মোঃ আবুল হোসেন সিকদার, জেলা রেকর্ডরুম শাখার অফিস সহকারী জামাল হোসেন, নেজারত শাখার সহকারী নাজির আরিফুল ইসলাম, ট্রেজারী শাখার অফিস সহকারী মোঃ আসাদুজ্জামান, এল এ শাখার সার্টিফিকেট সহকারী মোঃ খায়রুল বাশার, জেএম শাখার অফিস সহকারী মোঃ বেলাল হোসেন গাজী, নেজরত শাখার সহকারী লিটন সরকার, সহকারী নাজির আতিকুর রহমান, রেকর্ডরুম শাখার অফিস সহকারী মোঃ শাহাদাত হোসেন ও রেকর্ডরুম শাখার অফিস সহকারী জাহিদ ইবনে কামাল সহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মচারীরা।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর