ব্যস্ত নগরীর নিস্তব্ধ রূপ!


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:২৭ পিএম, ২৬ মার্চ ২০২০, বৃহস্পতিবার
ব্যস্ত নগরীর নিস্তব্ধ রূপ!

অতিপরিচিত ব্যস্ত নারায়ণগঞ্জ শহরের এ যেন এক ভিন্ন রূপ! নিস্তব্ধ ও শান্ত এ শহরে যেন নেই প্রানের স্পন্দন! অথচ ২৬ মার্চ (স্বাধীনতা দিবস) উপলক্ষে হওয়ার কথা ছিল কতই না জাকজমকপূর্ণ আয়োজন। সকাল থেকে ধরে সারাদিন চাষাঢ়ায় অবস্থিত বিজয় স্তম্ভ ফুল দিয়ে সাজার কথা। স্বাধীনতার গান বাজার কথা। শিশুদের স্বাধীনতার গল্প শোনার আসর বসার কথা। কিন্তু নোভেল করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে সারা শহর যেন আজ নিস্তব্ধ।

২৬ মার্চ (বৃহষ্পতিবার) লিংক রোডে অবস্থিত এলাকা জালকুড়ি থেকে চাষাঢ়া এলাকা পর্যন্ত সরেজমিনে এ পরিস্থিতি লক্ষ্য করা যায়।

জালকুড়ি বাসস্ট্যান্ডে রোজ কয়েক হাজার মানুষের আনাগোনা থাকে। অথচ কয়েকটি খালি রিকশা ছাড়া আর কাউকে দেখা যায়নি। মাঝে মধ্যে লিংক রোডে কয়েকটি অটো দেখা যাচ্ছে অন্যান্য সময় এ অটো সাইনবোর্ড থেকে জেলা পরিষদ পর্যন্ত যাতায়াত করে। কিন্তু এ সময় তারা সাইনবোর্ড থেকে চাষাঢ়া পর্যন্ত যাতায়াত করছে।

অটো চালক ইসমাইলকে এ বিষয়ে জিজ্ঞেস করলে সে নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘অন্যান্য দিন রাস্তায় অনেক গাড়ি থাকে, কিন্তু আজকে কয়েকটা সিএনজি আর অটো ছাড়া কোনো গাড়ি নাই। তাই মানুষের সুবিধার জন্য এই পর্যন্ত আসতে হয়। তাছাড়া আজ ট্রাফিক পুলিশও কিছু কয় নাই। শুধু যাদের মাস্ক নাই, তাদের ধরতেছে।’

শিবু মার্কেটে দেখা যায়, কয়েকটি মালামাল বহনকারী ট্রাক, খালি রিকশা ছাড়া কেউ তেমন নেই রাস্তায়। এক পথচারিকে হন্তদন্ত হয়ে ছুটে অটোতে উঠতে দেখা। এ সংকটময় পরিস্থিতিতে কেন বাইরে বের হয়েছেন তা জিজ্ঞেস করতে তিনি বলেন, ‘আমার বড় মেয়ে এ্যাজমার রোগী। ওর সব সময় ইনহেলার লাগে। কিন্তু নানা পরিস্থিতির কারণে আমরা খেয়াল করিনি যে ওর ইনহেলার প্রায় শেষ। সেটা নিতেই এভাবে ছুটে যাচ্ছি। এরূপ গুরুতর প্রয়োজন না হলে এই ভয়ংকর পরিস্থিতিতে বাইরে কে বের হবে?’

নারায়ণগঞ্জ শহরের ব্যস্ততম জেলা পরিষদ এলাকায়ও দেখা যায় একেবারে ভিন্ন চিত্র। যে এলাকায় একই সাথে রয়েছে জেলা পরিষদ, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, পুলিশ সুপারের কার্যালয়, সিভিল সার্জনের কার্যালয়, আদালতসহ অনেক গুরুত্বপূর্ন কার্যালয়। এ কার্যালয়গুলোর কার্যক্রমের জন্য উক্ত এলাকা যেন অন্যান্য সময় জনসমুদ্রের মতো দেখায়। অথচ আজ এলাকা স্তব্ধতা ধারণ করেছে। জেলা পরিষদ হয়ে আর্মি মার্কেটে এসে দেখা যায়, লিংক রোডে অবস্থিত চির ব্যস্ত এ মার্কেট যেন একবারেই নিরব।

পরবর্তিতে চাষাঢ়ায় এসে দেখা যায়, চারপাশে পুলিশ সদস্য ছাড়া সাধারন মানুষের যেন দেখা নেই। কিছু রিকশা যাত্রীর জন্য অপেক্ষা করছে। সিএনজিগুলো মুক্তারপুর যাওয়ার উদ্দেশ্যে দাড়িয়ে আছে, অথচ যাত্রী নেই। সকালে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে অনেকটা নিরবতার সাথেই চাষাঢ়ার বিজয় স্তম্ভে পুষ্প অর্পন করে প্রশাসন।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর