মাইকিং করে ব্যর্থ কাউন্সিলর চাইলেন প্রশাসনের সহযোগিতা


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ১০:৪০ পিএম, ০৪ এপ্রিল ২০২০, শনিবার
মাইকিং করে ব্যর্থ কাউন্সিলর চাইলেন প্রশাসনের সহযোগিতা

আন্তরিক ব্যবহার, মাইকিং সহ হুশিয়ারী দিয়েও বাসিন্দাদের ঘরে রাখতে ব্যর্থ হয়ে প্রশাসনের সহযোগিতা চেয়েছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ।

এতে ক্ষোভ থাকলেও দুঃখভরা মন নিয়ে বলেছেন, ‘সচেতনতা ছাড়া এ মহামারি থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায় নেই। এজন্য সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী সবাইকে ঘরে থাকতে হবে। কিন্তু কেউ সেটা না মেনে ঘর থেকে বের হয়ে নিজে, পরিবার ও সমাজকে ঝুঁকির মুখে ঠেলে দিচ্ছেন। এতে করে বলার পরও তারা কথা শুনছেন না।’

 

৪ এপ্রিল শনিবার দুপুরে শহরের গলাচিপা (কলেজ রোড) এলাকায় গণসচেতনতার মাইকিং ও জীবাণুনাশক পানি ছিটানোর কার্যক্রম পরিচালনার সময় নিউজ নারায়ণগঞ্জ প্রতিবেদককে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় তিনি জানান, শনিবার থেকে এলাকার চায়ের দোকান, খাবার দোকান বন্ধ করে দিয়েছি। ওষুধ ও খাদ্য সামগ্রী বিক্রয়ের দোকান ছাড়া সব দোকান বাধ্যতামূলক বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এর আগে কাউন্সিলর খোরশেদ নিজে হ্যান্ড মাইক নিয়ে ঘোষণা দেন, সবাই ঘরে থাকুন। ঘর থেকে বের হবেন না। এক মাত্র সচেতনতাই পারে আমাদের করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা করতে। সেজন্য সরকারের নির্দেশনাগুলো অনুসরণ করুন। জরুরী প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হলেও মাস্ক, হ্যান্ড গ্লাভস সহ সুরক্ষা সরঞ্জাম ব্যবহার করুন। ঘর থাকলে কিংবা বাইরে থেকে ঘরে প্রবেশ করলে সাবান দিয়ে ভালোভাবে ২০ সেকেন্ড হাত ধুয়ে নিন। ঘন ঘন হাত ধুয়ে নিবেন। ভিটামিন সি জাতীয় খাবার খাবেন। অসুস্থ হলে সঙ্গে সঙ্গে ডাক্তারের পরামর্শ নিবেন। যেকোন প্রয়োজনে সিটি করপোরেশনের হেল্প লাইনে যোগাযোগ করবেন। মেয়রের আহবানে সারা দিন প্লিজ।’

এ বক্তব্যে দেওয়ার সময়ও মাস্ক, গ্লাভস সহ সুরক্ষা সরঞ্জাম ছাড়া অনেক মানুষ চলাচল করছিলেন। এতে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং তারা কোথায় যাচ্ছেন এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে অনেকেই ডাক্তার দেখানো বা নিত্যপ্রয়োজনীয় কেনার অজুহাত দেন। পরে তিনি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের হুশিয়ারীও দেন। এরপরও কথা না শোনায় দুঃখ প্রকাশ করেন কাউন্সিলর খোরশেদ।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর