বেড়েছে চুরি ছিনতাই


স্টাফ করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ১০:৩০ পিএম, ২১ মে ২০২০, বৃহস্পতিবার
বেড়েছে চুরি ছিনতাই

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরকে ঘিরে আবারও সক্রিয় হয়ে উঠেছে নগরীর চোর ও ছিনতাইকারীরা। ঈদের কেনাকাটা করতে আসা মানুষের মোবাইল, মানিব্যাগ সহ বিভিন্ন মূলবান সম্পদ চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে। এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ না করলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে না।

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে জানানো হয়, অক্টো অফিস মোড়ে এক ব্যক্তির মোবাইল ছিনতাই করে ৪ যুবক। ওইসময় ওই ব্যক্তির চিৎকারে স্থানীয় বাস চালক দুইজনকে আটক করে। কিন্তু ৬ ঘণ্টা অভিযান চালানোর পরেও মোবাইল উদ্ধার করা যায়নি।’

ভুক্তভোগীদের অনেকেই জানান, শুধু অক্টো অফিস নয় শহরের বিভিন্ন শপিং মল, দোকান ও মার্কেটে চুরি ঘটনা ঘটছে। তাছাড়া সন্ধ্যা হতেই শহর ফাঁকা হয়ে যাওয়ায় ছিনতাইকারীরা সক্রিয় হয়ে উঠে। শহরের চাষাঢ়া মোড়, ডিআইটি, ম-লপাড়া, বাস টার্মিনাল, ডনচেম্বার সহ শহরের অলিগলিতে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটছে। তবে এ বিষয়ে থানায় কোন অভিযোগ দিতে দেখা যায়নি।

সমবায় মার্কেটে ঈদের মার্কেটিং করতে আসা মোমেনা বেগম বলেন, ‘আমার ব্যাগ থেকে মোবাইল ও নগদ টাকা চুরি করে নিয়ে যায়। কিন্তু কে নিয়েছে এটা তো জানতে বা দেখতে পারিনি। তাই আর থানায় অভিযোগ দিতে যাইনি। এভাবে অনেকের মোবাইল, টাকা বা গলার স্বর্ণের চেইনও চুরি হচ্ছে। কিন্তু কি করবে কেউ অভিযোগ দিতে যায় না। কারণ কার নামে অভিযোগ দিবে, থানায় গিয়ে কি বলবে, আবার থানায় গিয়ে বিভিন্ন প্রশ্নের স্বীকার হতে হবে। তাই নিজের ভাগ্যের দোষ দিয়ে বাসায় চলে যায়।’

দিপু নামে এক ভুক্তভোগী জানান, চুরি যাওয়া বা ছিনতাইয়ের ঘটনায় তেমন কোন প্রতিকার পাওয়া যায় না। থানায় গিয়ে জিডি করলেও পরে আর মালামাল পাওয়া যায় না। তাছাড়া থানায় বিশদ বিবরণ দিয়ে ব্যখা দেওয়ার এবং থানা পুলিশের ঝামেলা মনে করেও অনেকে অভিযোগ দেয় না।’

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন জানান, চুরি, ছিনতাই এসব ঘটনায় থানায় মামলা নিতে ইচ্ছুক না। কারণ এসব মামলা নিলে থানায় এলাকায় আইন শৃঙ্খলার অবনতি হিসেবে গণ্য করা হয়। যার জন্য কোন কিছু চুরি কিংবা ছিনতাই হলে অভিযোগ করতে গেলে পুলিশ প্রথমে জিডি করতে বলেন। পরে সেটা তদন্ত করে ব্যবস্থা নিবেন আশ্বাস দেন। কিন্তু পরে আর ভুক্তভোগী যোগাযোগ করেন না কিংবা পুলিশের ও এ বিষয়ে কোন অগ্রগতি থাকে না।’

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান বলেন,‘অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তাছাড়া পুলিশ সর্বক্ষনিক অপরাধীদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।’

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর