চালু হয়নি ফেরী, ফিরে যাচ্ছে যানবাহন (ভিডিও)


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৭:৪২ পিএম, ০২ জুন ২০২০, মঙ্গলবার
চালু হয়নি ফেরী, ফিরে যাচ্ছে যানবাহন (ভিডিও)

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে দুই মাসের অধিক সময় ধরে বন্ধ সকল যানবাহন। যে কারণে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল নারায়ণগঞ্জ শহরের হাজীগঞ্জ-নবীগঞ্জ ফেরী চলাচল। তবে লকডাউন তুলে নিয়ে যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলেও এই পথে ফেরী চলাচল এখনো চালু হয়নি। যে কারণে অনেকে গাড়ি নিয়ে ঘাটে এসে ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করে ফিরে যাচ্ছেন। দুই পাড়ের মানুষের অতিপ্রয়োজনীয় মালামাল পারাপারের একমাত্র মাধ্যম নৌকা। এতে গুণতে হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা।

১ জুন সোমবার বিকেলে সরেজমিনে দেখা যায় এমন চিত্র। সামাজিক দূরত্ব মেনে যাত্রী বহণের জন্য সব ধরনের যানবাহন চালুর ঘোষণা দেয় সরকার। তবে হাজীগঞ্জ-নবীগঞ্জ ফেরী ঘাটে এখনো ফেরী চালু হয়নি। তবে বন্ধ থাকলেও কোনো নোটিশ লাগানো নেই। যে কারণে অনেকে ব্যক্তিগত গাড়ি ও পন্যবাহী গাড়ি নিয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করলেও ফেরী ছাড়ার লক্ষণ না পেয়ে ফিরে যাচ্ছেন।

তবে বন্দর বাসীর জন্য কাঁচাবাজার, মুদি পন্য, ওষুধের মত অতি প্রয়োজনীয় জিনিস এবং মোটর সাইকেলের মত ছোট যানবাহন পারাপারের একমাত্র মাধ্যম এখন নবীগঞ্জ ঘাটের নৌকা এবং ট্রলার। যানবাহন চলাচলেরও আগে থেকে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সরকার। যে কারণে বন্দরের ছোট ব্যবসায়ীদের মালামাল নিয়ে নদী পার হতে হচ্ছে নৌকা দিয়ে। এতে খরচ পড়ছে দ্বিগুণেরও বেশি। একই সাথে অপচয় হচ্ছে অধিক সময় ও পরিশ্রম।

হাজীগঞ্জ-নবীগঞ্জ ফেরী ঘাট দিয়ে এসি নিয়ে পার হতে আসা ভ্যানগাড়ি চালক মো. আলাউদ্দিন নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘সব গাড়িঘোড়া চলতাছে মনে করছিলাম ফেরীও চলতাছে। খ্যাপ নিয়া আইছিলাম। কিন্তু আইসা দেখি ফেরী চলে না। আধাঘন্টা ধইরা বইসা আছি। জানা ছিল না দেইখাই তো আইছি। এখন আবার কষ্ট কইরা ফেরত যাইতে হইবো।’

নৌকা দিয়ে মালামাল পারাপা করা বন্দরের মুদি ব্যবসায়ী সবুজ হোসেন নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘এতদিন লকডাউনের কারণে নৌকা দিয়েই পারাপার করছি। আজকে ভাবছিলাম হয়তো ফেরী চলাচল শুরু হবে। কিন্তু এখনো ছাড়ে নাই। ফেরী দিয়ে কিশা নিয়ে পার হইতে রিকশা ভাড়া সহ যে খরচ হইতো এখন তিনগুন বেশি খরচ হয়। আবার ঘাটে একবার নৌকাতে উঠাইতে হয়। আবার নৌকা থেকে অটোতে তুলতে হয় ডাবল ঘাটতে হয়। ফেরী চালু হইলে এই কষ্ট থাকতো না।’

এ প্রসঙ্গে সড়ক ও জনপথ বিভাগের হাজীগঞ্জ-নবীগঞ্জ ফেরী ঘাটে কর্মরত কার্য সহকারী হাবিবুর রহমান নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘পানিতে জেটি ডুবে গেছে। তাই এখনো চালু করা হয়নি। পানিতে প্রাইভেটকারের অর্ধেক ডুবে যায়। কয়েকদিন আগেও ঢাকা থেকে পরিদর্শনে এসেছিল। আবারো পরিদর্শন করা হবে। ঢাকা থেকে অর্ডার পেলেই লোক পাঠিয়ে দেওয়া হবে। আবার পারাপার শুরু হয়ে যাবে।’

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর