পায়ে পাড়া দিয়ে ঝগড়া করতে অভ্যস্ত : সেলিম ওসমান (ভিডিও)


স্টাফ করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:৪৬ পিএম, ৩০ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার
পায়ে পাড়া দিয়ে ঝগড়া করতে অভ্যস্ত : সেলিম ওসমান (ভিডিও)

নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান বলেন, অনেককেই দেখছি মাস্ক পড়ছেন না। সতর্ক হওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা প্রত্যেকটা জায়গায় কাজ করছেন। সতর্ক হওয়া কঠিন কোনো কাজ না। মাস্ক পড়তে হবে, হাত ধুতে হবে এবং স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে। নিজেরা ক্ষতিগ্রস্ত হবো না অন্যকে ক্ষতিগ্রস্ত করবো না আমার পরিবারকে রক্ষা করবো। সকলের কাছে এটা আমার অনুরোধ।

নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির নব নির্মিত ডিজিটাল বার ভবনের নীচতলা আইনজীবীদের জন্য সাময়িক ব্যবহার উদ্বোধন উপলক্ষ্যে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে তিনি এসব কথা বলেন।

৩০ জুলাই বৃহস্পতিবার দুপুরে বার ভবনের নীচতলায় এই মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

সেলিম ওসমান বলেন, ঈদের পর থেকে সম্ভবত কোর্ট খুলবে। আপনি এবং আপনার মক্কেলকে অবশ্যই সাবধানতার দায়িত্ব গ্রহণ করবেন। সরকার আপনাদের কাছে কিছু চাই নাই। শেখ হাসিনা দুর্ভিক্ষ মোকাবেলার করার জন্য চেষ্টা করছেন। যদি তা না করতেন তাহলে লকডাউন থাকতো আর লকডাউন থাকলে ঘরে চাল থাকতো না। সারাদিন কোর্ট করে বাড়িতে গিয়ে ফ্রেশ না হয়ে কারও কাছে যাবেন না। সকলেই সতর্ককতার সাথে কাজ করবেন।

তিনি আরও বলেন, রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে আমরা অমানুষ হয়ে গিয়েছিলাম। আমরা পায়ে পাড়া ঝগড়া করতে অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছি। সকলের কাছে অনুরোধ থাকবে মানুষের জন্য কাজ করতে চাই। আমি কাজ করি মানুষের জন্য। নারায়ণগঞ্জের মানুষ উন্নয়ন চাই। তারা শান্তিতে থাকতে চাই। আমি কখনও রাজনীতি করি নাই। আইনজীবী সমিতিতে কোনো রাজনীতি ছিল না। আওয়ামী লীগ বিএিনপি জাতীয় পার্টি সকলেরই এক দাবী ছিল ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য একটি ভবন নির্মাণ করা।

ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য এখন একটা আইন কলেজ হওয়ার দরকার। একটা সুন্দর আইন কলেজ হওয়া খুব জরুরী হয়ে পড়েছে। আইনের মাধ্যমে আমার এলাকার মানুষ যেন সুবিধা পায়। আমি জেলা জজের কাছে অনুরোধ করবো সেভাবে যেন দিক নির্দেশনা দেয়ার জন্য। আল্লাহ যেন আমাকে হায়াৎ দেন। দোয়া করেন আল্লাহ যেন আরও কিছুদিন আমাকে হায়াৎ দেন। আমি আজ হায়াৎ চাই, কখনও এভাবে হায়াতের জন্য দোয়া চাই না। অনেকগুলো কাজ থাকিয়ে রয়েছে। আমি মানুষের জন্য কাজ করতে চাই।

কুরবানী ত্যাগের মাস। এই কুরবানীর মাসে সকলকে ত্যাগ করতে হবে। আমরা সবাই আল্লাহর কাছে মাফ চাইবো। আল্লাহ যেন আমাদেরকে করোনা থেকে মুক্তি দেন। নারায়ণগঞ্জের মানুষকে শান্তি দিতে চাই।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর