বর্ষবরণে প্রস্তুত নারায়ণগঞ্জ


সিটি করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:০৩ পিএম, ১৩ এপ্রিল ২০১৮, শুক্রবার
বর্ষবরণে প্রস্তুত নারায়ণগঞ্জ

বাঙালীদের প্রাণের উৎসব বাংলা নববর্ষ উদযাপনে প্রস্তুত নারায়ণগঞ্জ। শনিবার সেই কাংখিত পহেলা বৈশাখ। বৈশাখের মঙল শোভাযাত্রার জন্য যাবতীয় কাজ শেষ করেছে নারায়ণগঞ্জ চারুকলা ইন্সটিটিউট।

পহেলা বৈশাখ থেকে সাত দিন পর্যন্ত আলী আহাম্মদ চুনকা নগর পাঠাগার ও মিলনায়তনে গ্রন্থমেলা, চিত্রকলা ও আলোকচিত্র প্রদর্শনী ও নারায়ণগঞ্জ চারুকলা মাঠে বৈশাখী মেলা চলবে। এছাড়া অন্য অনুষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে, ১৪ এপ্রিল পহেলা বৈশাখ শনিবার ভোর সাড়ে ৫টায় প্রভাতী অনুষ্ঠান, সকাল ৯ টায় মঙ্গল শোভাযাত্রা, নারায়ণগঞ্জ চারুকলা ইনিস্টিটিউট সংলগ্ন মুক্তমঞ্চ এবং চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিকাল ৩ টায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।

বর্ষবরণ উদযাপন পরিষদের সমন্বয়ক ছাত্র প্রতিনিধি চারুকলা ইনস্টিটিউটের তৃতীয় বর্ষের (গ্রাফিক ডিজাইন বিভাগ) ছাত্রী মুসলিমা আনোয়ার তৃষা জানান, কাগজ কেটে নানান প্রক্রিয়ায় নির্মিত মুখোশ, কাগজের ম্যাশের মুখোশ ও শোভাযাত্রার মূল অনুষঙ্গ কাঠামো নির্মাণ এ তিনটি ভাগে অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী সম্পৃক্ত রয়েছে।

বর্ষবরণ উদযাপন পরিষদের আহবায়ক নারায়ণগঞ্জ চারুকলা ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ মো. সামছুল আলম বলেন, ‘আমাদের লোকশিল্পে আমাদের জীবনের সঙ্গে যা কিছু অতপ্রোত ভাবে জড়িত সেইগুলো শিল্পের উপকরণ হিসেবে মানুষ তৈরি করে। কৃষি ভিত্তিক অঞ্চলের মানুষের কাছে গরু গুরুত্বপূর্ণ। কৃষিকাজের সিংহ ভাগ দায়িত্ব গরু পালন করে। লোকশিল্পের মোটিভ গুলোর মধ্যে গরু আছে। মূলত কৃষিকে প্রাধান্য দিয়ে এবারের প্রধান আকর্ষণ ‘গরু’। ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষের কাছে আছে ও থাকে সেই জিনিসগুলো আমরা শোভাযাত্রায় প্রাধান্য দেই এবং উপস্থাপন করি। আমরা বোঝাতে চেষ্টা করি আমরা বাঙালিরা আলাদা একটি জাতি স্বত্তা।

তিনি আরো বলেন, ‘১৪ এপ্রিল সকাল ৬টায় সূর্যোদয়ের সঙ্গে বর্ষবরণে শিশু কিশোরদের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। পরে সাড়ে ৮টায় চাষাঢ়া গোলচত্ত্বর থেকে জেলা প্রশাসন, সাংস্কৃতিক জোট ও বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী সকলের অংশগ্রহণে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হবে।

নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক ধীমান সাহা জুয়েল বলেন, বর্ষবরণে সাত দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। ১৪ এপ্রিল সকাল চাষাঢ়া শহীদ মিনারে সূর্যোদ্বয়ের সাথে বাদ্যযন্ত্র, গান, নৃত্য ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যে বরণ করা হবে। পরে ৯টায় মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হবে। সাতদিন ব্যাপী অনুষ্ঠানে রয়েছে, চিত্রকলা প্রদর্শনী, আলোচিত্র প্রদর্শনী, নাটক, বাউল সঙ্গীত সহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আবদুল হামিদ জানান, সকাল সাড়ে ৮টায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হবে এবং পরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে বর্ষবরণ উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
-->
newsnarayanganj24_address
সাহিত্য-সংস্কৃতি এর সর্বশেষ খবর
আজকের সবখবর