খেলার উত্তেজনায় শহর স্তব্ধ


সিটি করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:২৬ পিএম, ০১ জুলাই ২০১৮, রবিবার
খেলার উত্তেজনায় শহর স্তব্ধ

বিশ্বকাপ খেলা মানে উত্তেজনা। আর ফুটবল যদি হয় তাহলেতো কোন কথাই নাই, আবাল-বৃদ্ধ-বনিতা সকলেই নেমে আসে খেলার মঞ্চে। সেখানে খেলেছে আর্জেন্টিনা-ফ্রান্স।

শনিবার ৩০ জুন সন্ধ্যা থেকে সেই খেলার প্রস্তুতি নিতে শুরু করে নারায়ণগঞ্জবাসী। রাত ৮টায় খেলা শুরু হলেও সন্ধ্যা থেকে শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলো ফাঁকা হতে শুরু করে। বেসরকারী অফিসসহ বিপনী বিতানগুলো বন্ধ হয়ে যায় আগেভাগে। সড়কে গাড়ির সংখ্যা কমে যায়। মানুষজন বাড়ি ফিরতে শুরু করে। কেউ কেউ ভিড় জমান মহল্লার বড় পর্দার খেলা দেখার আসরে।

মহল্লাসহ গুরুত্বপূর্ণ কিছু স্থানে প্রজেক্টরে বড় পর্দায় খেলা দেখার আয়োজন করে ব্যক্তি পর্যায়ে কোন কোন সংগঠন। সেখানে ৮টা বাজার আগেই দর্শকেরা ভিড় জমাতে থাকেন। কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায় খেলাদেখার স্থানগুলো। আয়োজকরা শেষ পর্যন্ত চেয়ার দিতে না পেরে চটের ব্যবস্থা করে। কোথও কোথাও সেই যায়গাও পূরণ হয়ে যায়। শেষে আসা দর্শকরা দাড়িয়ে খেলা উপভোগ করে। তারপরও দর্শকের সংখ্যা কম ছিলনা কোথাও।

আর্জেন্টিনা-ফ্রান্সের খেলার উত্তেজনাময় হওয়ায় বেশ উপভোগ করে দর্শকেরা। কোথাও কোথাও আর্জেন্টিনার সমর্থকরা খাবার দাবারের ব্যবস্থা করে। খেলার ফলাফলে দলটির সমর্থকরা হতাশ হলেও খেলা উপভোগ করে সকলের সথে মিলেমিশে। উপভোগ্য খেলাটি দর্শকের মাঝে বেশ উত্তেজনার সৃষ্টি করে। একের পর এক গোল তাদের নিয়ে যায় টান টান উত্তেজনায়। গোলের সুনিপুণ কৌশলে সবাই গোল বলে চিৎকার দিয়ে উঠে। হারিয়ে যায় রাশিয়ার ভেন্যুতে। আর্জেন্টিনা এবং ফ্রান্সের খেলার চমৎকার পাসিং এবং আক্রমন পাল্টা আক্রমনে উত্তেজনা ছড়িয়ে যায় সকলের শিরায় শিরায়। মুহুরমুহু কড়তালিতে হঠাৎ হঠাৎ দর্শকের মাঝে ছড়িয়ে পড়ে শীতল বাতাস। যা সবচেয়ে বেশি ছড়ায় আর্জেন্টিনার সমর্থকদের মাঝে। তারাও মাঝে মাঝে এগিয়ে গিয়ে উল্লাসে ফেটে পড়ে।

দর্শক সারির বয়ষ্ক হারুন মিয়া। তিনি বলেন, আগে রেডিওতে খেলা শুনতাম। এখন সচিত্র তার উপর বড় পর্দায় দেখতে পেয়ে মজা পাচ্ছি। যা ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না। তার উপর আজকের খেলাটি বেশি বেশি গোল হওয়ায় আলাদা একটি উত্তেজনা ছিল। সময়টি খুবুই এনজয় করেছি।

চাকরিজীবী রতন বলেন, খেলা দেখার জন্য দ্রুত অফিস থেকে ফিরে এসেছি। বন্ধুদের সঙ্গে নিয়ে খেলা দেখার মজাই আলাদা। খেলা দেখছি বড় পর্দায়। খেলার মাঝে মাঝে খাওয়া দাওয়া চলছে। চরম মজা পাচ্ছি। বিতর্ক থাকবে এটাই স্বাভাবিক। আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল, ফ্রান্স, ইতালি, পূর্তগাল, জামার্নী সমর্থকরা তাদের দলকে বড় করে দেখাতে বিভিন্ন তথ্য উপাত্তের ফুলঝড়ি ছাড়ছে। উত্তেজনা মাঠের বাইরে জমে উঠেছে। বড়ই মজার বিষয়। বেশ উপভোগ্য।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
-->
newsnarayanganj24_address
খেলাধুলা এর সর্বশেষ খবর
আজকের সবখবর