rabbhaban

প্রস্তুত নারায়ণগঞ্জ ঈদগাহ, জামাত সাড়ে ৮টায়


সোহেল রানা, স্টাফ করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৭:০১ পিএম, ২০ আগস্ট ২০১৮, সোমবার
প্রস্তুত নারায়ণগঞ্জ ঈদগাহ, জামাত সাড়ে ৮টায়

নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ২২ আগস্ট ঈদুল আজহার দিন ওই জামাতের সাথে একেএম শামসুজ্জোহা স্টেডিয়ামকে একত্রিত করে এখানে লাখো লোকের ঈদের জামাতের আয়োজন করা হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জে এবারই এটি প্রথম ও দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তর জামাত হবে বলে প্রত্যাশা করছেন আয়োজকরা।

একমাত্র ঈদের জামাতটির ঈমামতি করবেন নূর মসজিদের ঈমাম ও খতিব মাওলানা আব্দুস সালাম।

এবারের ঈদে নারায়ণগঞ্জের অন্যতম বড় আকর্ষণ হতে চলেছে জেলার বৃহত্তম ঈদ জামাত। প্রথমবারের মত একযোগে কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ও সামসুজ্জোহা স্টেডিয়ামে ঈদের একমাত্র প্রধন জামাতটি অনুষ্ঠিত হবে।

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের উদ্যোগে সর্ববৃহৎ ঈদ জামাত আদায়ের ঘোষণার পর প্রস্তুতির অধিকাংশ কাজ শেষ হয়েছে।  এখনো পর্যন্ত শেষ হয়েছে কাজের ৯০ ভাগ। অবশিষ্ট কাজ শেষ করার জন্য বেশ দ্রুতগতিতে চলছে কাজ। শেষ সময়ে চলছে মুসল্লিদের নামাজ আদাই এর সুবিধার জন্য ফ্যান, লাইট ও নিচে ত্রিপল বিছানোর কাজ। সেই সাথে চলছে মাঠে প্রবেশের জন্য দেওয়াল ভেঙ্গে প্রবেশ পথ তৈরী এবং ঈমাম সাহেবের বসার জন্য মিম্বর তৈরীর কাজ। আলোকসজ্জার জন্য স্টেডিয়ামের দেয়ালে লাগানো হচ্ছে মরিচা বাতি।

মাঠের কাজের পাশাপাশি মাঠের পাশে ফেলা ময়লা-আবর্জনা সরিয়ে মুসল্লিদের চলাচলের সুবিধার জন্য বালু ফেলে উচু করা হয়েছে। সেই সাথে দেওয়াল ভেঙ্গে মাঠে প্রবেশের জন্য প্রবেশ পথ তৈরী করা হয়েছে।

শেষ মুহূর্তের কাজ পর্যবেক্ষণ করতে এসে নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, কাজের ৯০ ভাগ শেষ হয়েছে। যেটুকু কাজ অবশিষ্ট আছে তা শেষ করতে মঙ্গলবার রাত ১২টা পর্যন্ত কাজ করতে হতে পারে।

লাইটিং ও ফ্যান লাগানোর দায়িত্ব পাওয়া আফজাল লাইটিং এর মালিক মো. আফজাল বলেন, মুসল্লিদের জন্য ২৫০টি স্ট্যান্ড ফ্যান লাগানো হবে। আলোর ব্যবস্থার জন্য ৮০টি বড় হ্যালোজিন লাইট এবং সৌন্দর্য বর্ধনের জন্য প্রায় ২ হাজার মরিচা বাতি লাগানো হবে।

ঈদগাহে কর্মরত ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান প্রিন্স ডেকোরের্টস এর শ্রমিক ইলিয়াস বলেন, মূল কাজগুলো শেষ হয়েছে। এখন যে কাজ করা হচ্ছে তা শুধু সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য।

এদিকে বৃহত্তম ঈদের জামাত আদায়ে আগত মুসল্লিদের নিরাপত্তার জন্য আইন শৃংখলা বাহিনীর পক্ষ থেকে থাকবে কঠোর ব্যবস্থা। পোষাকধারী পুলিশের পাশাপাশি মাঠে থাকবে সাদা পোষাকের পুলিশ। সেই সাথে র‌্যাবের ভ্রাম্যমান আদালত থাকতে পারে। প্রতিটি প্রবেশ পথেই মেটাল ডিটেক্টর বসানো হবে বলে আইন শৃংখলা বাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর