শামীম ওসমানের অপেক্ষায় পার হলো মাস


সিটি করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:৩০ পিএম, ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শনিবার
শামীম ওসমানের অপেক্ষায় পার হলো মাস

স্কুল ভবনের নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার প্রায় ১ মাস পেরিয়ে গেলেও ভবনের শ্রেনীকক্ষে পাঠদানের কার্যক্রম শুরু হয়নি নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ৯০নং জালকুড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের। নতুন ভবন তৈরির জন্য বিদ্যালয়ের পুরোনো একটি ভবন ভেঙে সেখানে নতুন ভবন তৈরি করা হয়েছে। তবে উদ্বোধনের অপেক্ষায় কোনো কার্যক্রম চালু হয়নি বলে জানা গেছে।

অভিভাবকদের কাছ থেকে জানা যায়, প্রায় ১ মাস হয়ে গেছে বিদ্যালয় ভবনটি তৈরি; তবুও সে ভবনে কোনো প্রকার কার্যক্রম শুরু হয়নি। একটি ভবন ভেঙ্গে ফেলার কারণে শ্রেনীকক্ষ সংকট দেখা যায়, যার ফলে পাশের পূর্ব জালকুড়ি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ভবনে শিক্ষার্থীদের ক্লাস করানো হয়। দুই বিদ্যালয়ের ক্লাস একসাথে হওয়ায় সকাল-বিকাল দুইটি শিফ্টে ক্লাস করানো হয় এতে ভোগান্তিতে পরতে হয় সাধারন শিক্ষার্থীদের।

আবিদ নামের শিক্ষার্থীর বাবা নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘দুই স্কুলের শিক্ষার্থীদের ক্লাস একসাথে হওয়ায় খুব সকালে প্রাইমারির শিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরু হয়। দেখা যায় শিক্ষার্থীদের খুব সকালে ঘুম থেকে উঠতে হয়। ফলে এত সকালে বাচ্চারা না খেয়েই স্কুলে চলে যায়। আবার উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ক্লাস দেরিতে শুরু হওয়ায় তাদের বাসায় যেতেও দেরি হয়ে যায়। অনেক দূরের এলাকা থেকে তারা পরতে আসে। এত তাদের পড়াশোনায়ও চাপ পরে।’

বিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, ঈদুল আযহার পর পরই নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমানের উপস্থিতিতে বিদ্যালয় ভবন উদ্বোধন হওয়ার কথা থাকলেও নানা কাজে তিনি সময় করে উঠতে পারেনি। তার জন্য অপেক্ষা করতে গিয়েই মূলত বিদ্যালয়ের উদ্বোধন হয়ে উঠেনি। তবে সাংসদ শামীম ওসমান বিদ্যালয়ের কর্মকর্তা, কর্মচারিদের নিয়ে নিজেরাই বিদ্যালয় ভবনটি উদ্বোধন করে কার্যক্রম শুরু করতে বলেছেন।

সে সূত্রেই ৯ সেপ্টেম্বর রবিবার স্কুলের কর্মকর্তা, কর্মচারি ও কমিটির সদস্যরা নিজেরাই উদ্বোধন করে শুরু করবেন নতুন ভবনের কার্যক্রম।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিতালী রায় নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘এতদিন চাবি ছিল ঠিকাদারের কাছে। ইঞ্জিনিয়ার ভবন পরিক্ষা নিরিক্ষা করতে যতটুকু সময় লাগে ততটুকুই দেরি হয়েছে। তবে কমিটির লোকজন এমপি সাহেবের সাথে যোগাযোগ করেছিলেন। কথা ছিল ঈদের পরপরই উদ্বোধন হবে। কিন্তু তিনি সময় করে উঠতে পারেনি। তাছাড়া আমাদের কাছে চাবিও বুঝিয়ে দেয়া হয়নি। তবে এখন আমরা চাবি বুঝে পেয়েছি। এমপি সাহেব বলেছেন নিজেদেরকেই উদ্বোধন করে কার্যক্রম শুরু করতে।’

বিদ্যালয়ের কমিটির সদস্য শাহ্ আলম বলেন, ‘ব্যস্ততার কারণে এমপি সাহেব ঠিক সময় করে আসতে পারেননি। তবে তিনি বলেছেন কার্যক্রম শুরু করতে। সময় করে তিনি স্কুল পরিদর্শন করে যাবেন।’

ঠিকাদার কামরুল ইসলাম নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘দেড় দুইমাস ধরে ভবনটির কাঠামো তৈরি হলেও ভিতরের টুকটাক অনেক কাজ করাতে হয়েছে। ঢাকা থেকে প্রজেক্ট ডিরেক্টর এসে সবকিছু কনফার্ম করার পরেই আমরা গত বুধবার বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নিকট চাবি হস্তান্ত করেছি। তার কনফারমেশন ছাড়া আমরা চাবি দিতে পারি না।’

আপনার মন্তব্য লিখুন:
-->
newsnarayanganj24_address
শিক্ষাঙ্গন এর সর্বশেষ খবর
আজকের সবখবর