গ্র্যান্ড হলে জরিমানা কমে দেড় লাখ থেকে ৬০ হাজার!


সিটি করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:২২ পিএম, ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, রবিবার
গ্র্যান্ড হলে জরিমানা কমে দেড় লাখ থেকে ৬০ হাজার!

দফায় দফায় করা অনুরোধের জেরে কমানো হলো গ্র্যান্ড হল রেস্টুরেন্টের জরিমানা। রবিবার (৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে যথাযথ অনুমোদন পত্র পাওয়া যায়নি গ্র্যান্ড হল রেস্টুরেন্টে। এ সময় বাংলাদেশ হোটেল ও রেস্তোরাঁ আইন, ২০১৪ অনুযায়ী জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উজ্জ্বল হোসেন প্রথমে দেড় লাখ টাকা জরিমানা ঘোষণা করেন ওই রেস্টুরেন্টকে।

এ সময় ম্যাজিস্ট্রেট বাংলাদেশ হোটেল ও রেস্তোরা আইন উল্লেখ্য করে বলেন, উক্ত আইন মোতাবেক পারিপার্শিক অবস্থার বিবেচনায় ২ লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানা অনাদায়ে কারাদন্ড দেয়া যাবে। হোটেলের বাকি পরিবেশ ও অবস্থার বিবেচনায় তাকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হলো।

কিন্তু এর পরপরই বারবার অনুরোধ করতে শুরু করেন গ্র্যান্ড হল রেস্টুরেন্টের ম্যানেজার ওবায়দুর রহমান। তিনি বারবার অনুনয় বিনয় করার এক পর্যায়ে অপর ম্যাজিস্ট্রেট মেজবাউল সাবেরিন জরিমানা কমিয়ে ১ লাখ টাকা লিখতে বলেন।

কিন্তু তাতেও ক্ষ্যান্ত হননি ওবায়দুর রহমান। তিনি তার ধারাবাহিক অনুরোধ চালিয়ে যেতে থাকেন। পাশাপাশি বলেন আপনারা আদালত আপনারা যা বলবেন তাই হবে। কিন্তু আমি কথা দিচ্ছি এ মাসের মধ্যেই লাইসেন্সগুলো করে ফেলা হবে।

জবাবে ম্যাজিস্ট্রেট দুইজন বলেন, ‘আপনাদের আগেও নোটিশ দেয়া হয়েছে। সুযোগ চাইছেন! সে সুযোগ আমরা এখানে আসার আগ মুহূর্ত পর্যন্ত ছিলো। এখন তা নেই। জরিমানা দিতেই হবে।’

কিন্তু আবারো আবদার করতে থাকেন ম্যানেজার ওবায়দুর রহমান। শেষে ম্যাজিস্ট্রেট দুইজন নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে ষাট হাজার টাকায় জরিমানা নির্ধারণ করেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
-->
newsnarayanganj24_address
অর্থনীতি এর সর্বশেষ খবর
আজকের সবখবর