rabbhaban

ফতুল্লায় আপন ভায়রার মেয়েকে নিয়ে পলায়নে লম্পট গ্রেপ্তার


ফতুল্লা করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:২০ পিএম, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, সোমবার
ফতুল্লায় আপন ভায়রার মেয়েকে নিয়ে পলায়নে লম্পট গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় স্ত্রী-সন্তান রেখে আপন বড় ভায়রার স্কুল ছাত্রী মেয়েকে (১৪) নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনা অবশেষে লম্পট নবী হোসেনকে (৩২) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। দীর্ঘদিন পালিয়ে থাকার পর অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়লো লম্পট নবী হোসেন

রোববার (১০ সেপ্টেম্বর) ভোরে ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ পাকাপুল এলাকার মরহুম সাবেক চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিনের ভাড়াটিয়া বাড়ী হতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত লম্পট নবী ইসলাম ফতুল্লার পূর্ব গোপালনগর (চর নবীনগর) এলাকার বাদল মুদির ছেলে।

পুলিশ সূত্র জানা গেছে, ফতুল্লার পূর্ব গোপালনগর এলাকার বাদল মুদির ছেলে লম্পট নবী হোসেন একই এলাকায় বিয়ে করে। তাদের সংসারে একটি ছেলে একটি মেয়ে জন্ম নেয়। আর লম্পট নবী হোসেনের আপন ভায়রার মেয়ে মুসলিমনগর এলাকার স্কুল ছাত্রী তাদের বাড়িতে বেড়াতে আসলে লম্পটের নজরে পড়ে। একপর্যায়ে লম্পট নবী তার ভায়রার মেয়েকে কু-প্রস্তাব দেয়। এতে সে রাজী হয়নি। পরে মেয়েটি স্কুলে আসা যাওয়ার পথে উত্ত্যক্ত করতো। আর গত বছরের ২ অক্টোবর সন্ধায় স্কুল ছাত্রী তার বাড়ির পাশ্ববর্তী এক বান্ধবীর বাড়িতে যাওয়ার পথে লম্পট নবী ইসলামসহ তার লোকজন স্কুল ছাত্রীর রাস্তা গতিরোধ করে তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় স্কুল ছাত্রীর মা রোকেয়া বেগম বাদী হয়ে লম্পট নবী ইসলামসহ তিন জনের নাম উল্লেখ করে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করে। এ মামলায় তদন্তকারী অফিসার লম্পট নবীকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে। এছাড়াও লম্পট নবী হোসেনের স্ত্রী আদালতে মামলা দায়ের করে। এ দুটি মামলায় লম্পট নবীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি করা হয়। আর দীর্ঘদিন ধরে নবী পলাতক থাকার পর সোমবার ভোরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাফিউল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, স্ত্রী সন্তান ফেলে আপন ভায়রার মেয়েকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনার দায়েরকৃত মামলাসহ দুটি মামলার গ্রেপ্তারী পরোয়ানায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে এলাকায় নানা অপকর্মের অভিযোগ রয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
rabbhaban
আজকের সবখবর