rabbhaban

নাসিম ওসমানের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা স্কুল বন্ধের পায়তারা


সিটি করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ১০:৫৮ পিএম, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, সোমবার
নাসিম ওসমানের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা স্কুল বন্ধের পায়তারা

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সৈয়দপুর কদমতলী এলাকার বাসিন্দা একজন মুক্তিযোদ্ধা মো: শরিয়ত উল্লাহ ফরাজী। দেশের প্রতি প্রবল টান আর ভালাবাসায় দেশ রক্ষায় অস্ত্র হাতে তুলে নেন তিনি। দেশ জয় করেও তিনি ক্ষ্যান্ত হননি। স্বপ্ন দেখেন নতুন প্রজন্মকে দেশ ও দেশের স্বাধীনতা সম্পর্কে জানানোর জন্য। আর তাই মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতি রক্ষার্থে নিজ জমিতে একটি অবৈতনিক বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন।

যার নামকরণ করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা হচ্ছে ২০০ জন। ২০০৯ সালে বিদ্যালয়টির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের প্রয়াত সংসদ সদস্য নাসিম ওসমান। পাশাপাশি তিনি ঘর বাধার জন্য টিন বরাদ্দ দেন। কিন্তু শুধুমাত্র টিন দিয়ে তো আর ঘর বাঁধা যায় না। অর্থের জন্য বিভিন্ন জায়গায় ছুটাছুটি করেও কোন লাভ হয়নি।

পরবর্তীতে মুক্তিযোদ্ধা মো. শরিয়ত ল্লাহ ফরাজী নিজ বাড়ী নির্মাণের জন্য সঞ্চিত টাকা দিয়েই বিদ্যালয়ের ঘর নির্মাণ করা হয়। বর্তমানে তিনি পরিবার পরিজন নিয়ে ভাড়া বাসায় বসবাস করছেন। ইতিমধ্যে বিদ্যালয়ের সহযোগিতায় অনেক হাত বাড়িয়েছেন, যাদের প্রতি তার রয়েছে কৃতজ্ঞতা। সবকিছু মিলিয়ে বিদ্যালয়টি মোটামুটিভাবে তার কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল।

কিন্তু একই এলাকার বাসিন্দা মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে নূরু মিয়াসহ অজ্ঞাত ভূমিদস্যুরা দলবল নিয়ে বিদ্যালয়ের সম্মুখে খেলার মাঠটি দখল করে নিয়ে আসা যাওয়ার পথ বন্ধ করে দেয়। এই নূরু মিয়া খেলার মাঠে পরিবেশ দূষণ, শব্দ দূষণ ও ডকইয়ার্ড নির্মাণের চেষ্টা করছে। তিনি বিদ্যালয়টি ধ্বংসের পায়তারা করছে। তাদেরকে বাধা দিতে গেলেই ভয়-ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করছে।

এরই মধ্যে ১০ সেপ্টেম্বর সোমবার বেলা ১১টার দিকে নূরু মিয়া ১০/১২ জন সন্ত্রাসী নিয়ে বিদ্যালয়ের জায়গায় দেয়াল নির্মাণ কাজ শুরু করেন। বাধা দিতে গেলে বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা মো: শরিয়ত উল্লাহ ফরাজীকে বেধম মারধর করে। একই সাথে তাকে প্রাণে মেরে ফেলা হুমকি প্রদান করে। এই অভিযোগে বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা মো: শরিয়ত উল্লাহ ফরাজী ১০ সেপ্টেম্বর সোমবার সদর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। পাশাপাশি তিনি সমাজের সকল স্তরের মানুষের সহযোগিতাও চেয়েছেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
rabbhaban
আজকের সবখবর