rabbhaban

ভেদাভেদ নয়, ঐক্যমতের ভিত্তিতে পূজা পরিষদের কমিটি হবে : খোকন সাহা


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ১১:২৮ পিএম, ২৫ মে ২০১৯, শনিবার
ভেদাভেদ নয়, ঐক্যমতের ভিত্তিতে পূজা পরিষদের কমিটি হবে : খোকন সাহা

নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সমন্বয়ক ও মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা বলেছেন, কোন ভেদাভেদ নয়, ঐক্যমতের ভিত্তিতে জেলা ও মহানগর পূজা উদযাপন কমিটি গঠন করা হবে । পাশাপাশি এও বলতে চাই, কোন পকেট কমিটি চলবে না। সকল কমিটি সম্মেলনের মধ্য দিয়ে গঠন করা হবে। নতুন নেতৃত্ব ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের যাবতীয় সমস্যা সমাধানের জন্যে পূজা পরিষদকে আরও সুসংগঠিত করে তুলবে।

শনিবার (২৫ মে) বিকেলে সোনারগাঁও উপজেলার মোগড়াপাড়াস্থ বড়নগর গৌর নিতাই আখড়া প্রাঙ্গণে পূজা উদযাপন পরিষদ সোনারগাঁও উপজেলা শাখার দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, কিছু কিছু সমস্যা তো আছেই। দেশের বিভিন্ন স্থানে সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা ও নির্যাতন করা হচ্ছে এবং মন্দিরে হামলা ও ভাংচুর করা হয়েছিল। কিছু স্বার্থান্বেষী মহল সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতে এ হামলা ও অপপ্রচার চালিয়ে ছিলো। সরকারের কঠোর হস্তক্ষেপে তা দমন করা হয়েছে। আমাদের মনে রাখতে হবে বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা হলেন সংখ্যালঘুদের আশ্রয়স্থল। সুতরাং এমন কিছু করবো না যাতে করে সরকারকে বিব্রতকর অবস্থায় পরতে হয়।

তিনি বলেন, আগামী জুন-জুলাইয়ের মধ্যেই জমজমাট আয়োজনের মধ্য দিয়ে জেলা ও মহানগর পূজা পরিষদের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। অতীতের চেয়ে এবারের পূজা উদযাপন পরিষদের কমিটি অনেক শক্তিশালী হবে ।

এদিকে পূজা কমিটির বিভিন্ন থানার নেতৃবৃন্দরা বক্তব্যে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, জেলা কমিটি সভাপতি শংকর কুমার সাহা ও সাধারণ সম্পাদক সুজন সাহা তারা নেতৃত্বে থাকলে কি হবে। তাদের দিয়ে থানা কমিটির নেতৃবৃন্দের কোন উপকার আসে না। বিপদ আপদে খুঁজেও পাওয়া যায় না। তারা নিজেদের নিয়ে ব্যস্ত থাকে। তৃণমূলের কোন খোঁজ খবর নেননি। আমাদের কোন সমস্যায় তো তাদেরকে পাশে পাইনি। আমাদের দাবি একটাই সেটি হলো জেলা কমিটির সভাপতি দীপক সাহা ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে শিখন সরকারকে দেখতে চাই। হিন্দু সম্প্রদায়ের যেকোনো সমস্যা হলেই তারা ছুটে আসেন খোঁজ খবর নেন। এবং আর্থিক সহায়তার মাধ্যমে আমাদের বিভিন্ন সমস্যা করে থাকেন। এ সময়ে থানা কমিটির নেতৃবৃন্দরা দ্রুত জেলা কমিটির গঠনের জন্য কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দদের প্রতি আহ্বান জানান ।

আগামী দুই বছরের জন্য লোকনাথ দত্তকে সভাপতি ও প্রদীপ ভৌমিককে সাধারণ সম্পাদক করে ৯ সদস্য বিশিষ্ট সোনারগাঁও উপজেলা পূজা পরিষদের নতুন কমিটি ঘোষণা করেন এবং আগামী ১৫ দিনের মধ্যে বিশিষ্ট সাংবাদিক শংকর কুমার দের সাথে আলোচনা করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি জমা দেওয়ার নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

সোনারগাঁও উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি লোকনাথ দত্তের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ ভৌমিকের সঞ্চালনায় সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় পূজা উদযাপন পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক সাগর হালদার, বিশেষ অতিথি নারায়ণগঞ্জ মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি দীপক কুমার সাহা, সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার শিপন, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার দাশ, মহানগরের সাধারণ সম্পাদক নিমাই দে প্রমুখ ।

বক্তব্য রাখেন জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সহ সভাপতি মনোরঞ্জক দাস, বিজয় সরকার, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সহদেব দাস, মহানগর কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি অরুন কুমার দাশ, যুগ্ম সম্পাদক সাংবাদিক উত্তম সাহা, কোষাধ্যক্ষ সুশীল দাস, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক কালীপদক মল্লিক, আড়াইহাজার থানা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি হারাধন চন্দ্র দে,  ফতুল্লা কমিটির সহ সম্পাদক অরুণ দাশ, বন্দর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শংকর কুমার দাশ, সাধারণ সম্পাদক শ্যামল বিশ্বাস, সিদ্ধিরগঞ্জ কমিটির সভাপতি শিশির ঘোষ অমর, জাতীয় হিন্দু মহাজোটের জেলা কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট রঞ্জিত কুমার দে ।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর