rabbhaban

কারা আসছেন ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:৩০ পিএম, ২৩ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার
কারা আসছেন ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সম্মেলন নিয়ে শুরু হয়েছে প্রস্তুতি। ইতোমধ্যে দীর্ঘ ১১ বছর পর ২২ আগস্ট বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে কার্য নির্বাহী কমিটির সভা। এতে সম্মেলনের কোন নির্ধারিত তারিখ ঘোষণা করা না হলেও মূল উদ্দেশ্য সম্মেলন। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আগামী সেপ্টেম্বরের শেষে কিংবা অক্টোবরের শুরুতেই হতে পারে সম্মেলন।

ইতোমধ্যে নেতাকর্মীদের বহুল আলোচনা সমালোচনার প্রেক্ষিতে দীর্ঘ একযুগ থেকে শুরু করে দেড়যুগ পর নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের নিয়ন্ত্রণে থাকা বিভিন্ন থানা কমিটিগুলোর গঠন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। আর এই গঠন প্রক্রিয়াই নতুনরা এসে কমিটিতে যুক্ত হচ্ছেন এবং পুরাতনরা কমিটি থেকে ছিটকে পড়ছেন। সম্প্রতি রূপগঞ্জ ও আড়াইহাজার থানা আওয়ামীলীগের সম্মেলন শেষে ঘোষিত কমিটিতে সেটাই পরিলক্ষিত হচ্ছে। এছাড়া সোনারগাঁয়ের কমিটিও ঘোষণা করা হয়েছে।

ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইফউল্লাহ বাদল জানান, আমি দীর্ঘদিন ধরে থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে ছিলাম। দলের দুঃসময়ে দলকে আগলে রেখেছি বিএনপির হামলা মামলার মধ্যেও। এছাড়া বিগত আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে কবরী এমপি থাকা সময়েও আমাদের উপর জুলুম নির্যাতন হয়েছে। এখন কাশীপুরের চেয়ারম্যান হয়েছি। বয়সও অনেক হয়ে যাচ্ছে। এখন একটু বিশ্রাম নিতে চাই। তাই সম্মেলন করেই নতুনদের হাতে নেতৃত্ব ছেড়ে দিব।

জানা গেছে, ২০০৪ সালে বিএনপি জোট সরকার আমলে ফতুল্লা থানা ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের কমিটি গঠন করা হয়। ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি করা হয় এম সাইফউল্লাহ বাদল ও সাধারণ সম্পাদক করা হয় শওকত আলীকে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের বর্তমান সেক্রেটারী শওকত আলী হতে পারেন ভবিষ্যত সভাপতি। আর সেক্রেটারী পদে একাধিক প্রার্থীর মধ্যে চলছে অসম প্রতিযোগিতা। স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ফরিদ আহমেদ লিটন, এনায়েতনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামানের নাম আছে সেক্রেটারীর তালিকাতে। এছাড়া থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বদিউল আলম বদুর নামও আছে।

গত ১৬ জুলাই সম্মেলনের মাধ্যমে রুপগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। আর এই নতুন কমিটিতে সভাপতি পদে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর, সাধারণ সম্পাদক পদে শাহজাহান ভূঁইয়া রয়েছেন। তিনি এর আগেও থানা কমিটির সাধারণ সম্পাদক পদে ছিলেন। এই কমিটিতে সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান ভূইয়া কোনো পদোন্নতি ছাড়া টিকে থাকলেও ছিটকে পড়েছেন পূর্বের কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা। তাকে ভারমুক্ত হওয়া ছাড়াই কমিটি থেকে বিদায় নিতে হয়েছে।

এদিকে জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় ঘোষিত তারিখ অনুযায়ী আড়াইহাজার থানা আওয়ামীলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও এমপি নজরুল ইসলাম বাবুর বড় ভাই মারা যাওয়ায় সে সম্মেলন গত ২২ জুলাই অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে আড়াইহাজার থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন আড়াইহাজার এলাকার সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। এখানেও ছিটকে পড়েছেন পূর্বের কমিটির সভাপতি মো. শাহজালাল মিয়া। সেই সাথে সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুর রশিদকেও ছিটকে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যদিও এখন পর্যন্ত কোন ঘোষণা দেয়া হয়নি।

দলীয় সূত্র জানা গেছে, ২০০৪ সালের ডিসেম্বর মাসে ফতুল্লার ডিআইট মাঠে ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সর্বশেষ সম্মেলন হয়। ওই সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের তৎকালীন প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুর রাজ্জাক, বিশেষ অতিথি জাতীয় শ্রমিকলীগের তৎকালীন সভাপতি আব্দুল মতিন মাস্টার, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের তৎকালীণ ত্রাণ ও সমাজ কল্যান সম্পাদিকা অধ্যাপিকা নাজমা রহমানসহ নেতৃবৃন্দ। আর ওই সম্মেলনে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের সমর্থনে এম. সাইফ উল্লাহ বাদল সভাপতি ও শওকত আলী সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। এরপর সেই কমিটি দিয়েই বছরের পর বছর অতিবাহিত হয়ে দীর্ঘ প্রায় ১৫ বছর অতিবাহিত হয়ে গেল।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর