করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে বিনা পারিশ্রমিকে কাজ করছে কারাবন্দিরা


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:১৭ পিএম, ২৬ মার্চ ২০২০, বৃহস্পতিবার
করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে বিনা পারিশ্রমিকে কাজ করছে কারাবন্দিরা

কয়েকজন শ্রমিক বিনা পারিশ্রমিকে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে মাস্ক বানাচ্ছে যা করোনা ভাইরাসে উদ্ভুত এ পরিস্থিতিতে শুধুমাত্র উৎপাদন খরচে জনসাধারণের কাছে পৌছে দেয়া হচ্ছে। আর এই শ্রমিকরা সাধারণ কোনো শ্রমিক নয়, বরং নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারের বন্দি। এদের মধ্যে কারও বিরুদ্ধে রয়েছে খুনের অভিযোগ, কারও বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা, কারও বিরুদ্ধে রয়েছে মাদক ব্যবসার অভিযোগ।

অথচ দেশের এ করোনা ভাইরাসের সংকটময় পরিস্থিতিতে যখন অসাধু ব্যবসায়ীরা অতিরিক্ত মূল্যে মাস্ক বিক্রি করছে, সেখানে সকল অপরাধ ভুলে গিয়ে আপাতত পরিস্থিতি সামাল দিতে স্বেচ্ছায় বিনা পারিশ্রমিকে কাজ করছে তারা।

কারাগার সূত্রে আরও জানা যায়, বর্তমানে মাস্ক ছাড়াও পিপিই (পারসোনার প্রটেক্টিভ ইকুইপমেন্ট) তৈরি করছে নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারের অভ্যন্তরীন এ গার্মেন্টস ‘রিজিলিয়ান্স’। যার স্যাম্পল কারা অধিদপ্তরে পাঠানো হয়েছে। কারা অধিদপ্তর এ স্যাম্পল নিশ্চিত করলে দেশের সকল কারাগারের কর্মকর্তা ও কর্মীদের জন্য এ পিপিই তৈরি করা শুরু হবে। কারা অধিদপ্তর ও সরকার যৌথভাবে এ পিপিই তৈরির খরচ বহন করবে।

এ বিষয়ে জেল সুপার সুভাষ কুমার ঘোষ নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘করোনা ভাইরাসের এ ভয়াবহতায় অসাধু ব্যবসায়ীরা সুযোগ নিচ্ছে। তাছাড়া আমাদের দেশে পিপিই’র সল্পতা রয়েছে। ফলে আমাদের বন্দিরা স্বেচ্ছাসেবা হিসেবে বিনামূল্যে মাস্ক এবং পিপিই তৈরির কাজ করছে। আমরা জনসাধারনের জন্য ইতোমধ্যে শুধু উৎপাদন খরচে মাস্ক বিক্রি শুরু করেছি। এবং কারা অধিদপ্তরে আমরা পিপিই এর স্যাম্পল পাঠিয়েছি। তারা স্যাম্পলটি নিশ্চিত করলে আমরা নিজেদের দপ্তরের জন্য নিজেরাই পিপিই এর ব্যবস্থা করতে পারবো।’

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর