rabbhaban

ডিশ বশির ও জামানের বিরুদ্ধে টানা ৭ বছর ধরে ধর্ষণের অভিযোগ


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:৫৯ পিএম, ১৮ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার
ডিশ বশির ও জামানের বিরুদ্ধে টানা ৭ বছর ধরে ধর্ষণের অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে বিধবা নারীকে বিয়ে ও ওরসজাত সন্তানকে গ্রহণ করার প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘ ৭ বছর ধরে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে বন্দরের ২ ডিশ ব্যাবসায়ী বশিরউদ্দিন ওরফে ডিশ বশির ও জামান ওরফে ডিশ জামানের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) নারায়ণগঞ্জ জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করে ভুক্তভোগী বিধবা নারী।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক জুয়েল রানা মামলাটি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিকেশনকে (পিবিআই) তদন্ত করার নির্দেশ প্রদান করেন।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, বাদী এবং বিবাদী একই এলাকায় বসবাস করে। দীর্ঘদিন যাবত বশির উদ্দিন ওরফে ডিশ বশিরের বাসায় কাপড় ধোয়া মোছা সহ গৃহাস্থলির কাজ করে দিত। ২০১১ সালের জানুয়ারির শেষের দিকে রাতে বাসায় ডেকে নিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে বশির। এ ঘটনায় প্রকাশ না করার শর্তে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ধামাচাপা দিয়ে রাখে বশির। বাদী গর্ভবতী হয়ে পড়লে বেশ কয়েকবার সন্তান নষ্ট করার চেষ্টা করলেও বাদীর অমতে ব্যর্থ হয়। এরপর বাদী পুত্র সন্তান প্রসব করলে তার বাবা হিসেবে স্বীকার করে নেয়ার কথা বললে বশির অস্বীকার করে।

এর পরবর্তীকালে বাচ্চা স্বীকার ও স্ত্রীর মর্যাদা প্রদানের প্রলোভনে ৬ বছর ধরে বিভিন্ন সময় ধর্ষণ করে বশির।

২০১৮ সালের ১৪ জানুয়ারি মীমাংসার কথা বলে বাদীকে বাসায় ডাকে বশির। এসময় কবে বিয়ে করবে জানতে চাইলে বশির আশ্বাস দিয়ে পুনরায় ধর্ষণ করে বের হয়ে যায় এবং সাথে সাথেই ২ নং আসামী জামান ঘরে প্রবেশ করে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এবং এই ঘটনা প্রকাশ করলে ভিক্টিম ও তার সন্তানকে হত্যার হুমকি দেয় জামান। বিধবা দিন দিন মানসিকভাবে বিপর্যস্ত এবং মানুষের কটূক্তি শুনে থানায় মামলা করতে গেলে থানা মামলা গ্রহণে অস্বীকার করে। পরবর্তীতে ভিক্টিম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্র্যাইবুনালে মামলা দায়ের করে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর