rabbhaban

বন্দরে নারীদের তারাবীহ আদায় কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, ১১জনের জামিন


বন্দর করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৬:০২ পিএম, ১৫ মে ২০১৯, বুধবার
বন্দরে নারীদের তারাবীহ আদায় কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, ১১জনের জামিন

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় পুরুষ ইমাম দিয়ে নারীদের তারাবীহ নামায আদায় করাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনার মামলায় ১১ জনের জামিন হয়েছে।

১৫ মে বুধবার সকালে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফাহমিদা খাতুনের আদালত তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের এসআই কামাল হোসেন বলেন, সিটি করপোরেশনের ২৭নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর সিরাজুল ইসলাম তার দুই ছেলে ফরহাদ, মেহেদী ও তার ছোট তিন ভাই সাইদ, আনু, মনির সহ অ্যাডভোকেট শাহ মাজহারুল হক , জুলমত খাঁ, শাহ গোলাম রসুল মুন্না, সাইদুল ইসলাম আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করেছেন। আদালত শুনানী শেষে তাদের জামিন মঞ্জুর করেছেন।

শাহ মাজহারুল হক জানান, নাসিক ২৭নং ওয়ার্ডের কুড়িপাড়া এলাকায় জান্নাতুল বানাত মহিলা মাদ্রাসায় একজন পুরুষ নারীদের তারাবিহ নামায পড়াতে শুরু করেন। বিষয়টি এলাকাবাসীর কাছে শরীয়াহ মোতাবেক না হওয়ায় এতে প্রতীবাদ জানিয়ে বাধা দেয়।

এতে স্থানীয় নাসিক কাউন্সিলর কামরুজ্জামান বাবুল ও তার সমর্থকরা ক্ষিপ্ত হয়ে একই ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর সিরাজুল ইসলাম ও তার পরিবারের লোকজনসহ এলাকাবাসীর উপর অতর্কিত হামলা চালায়। তাদের হামলায় সিরাজুল ইসলামের পরিবারের ৬জনসহ অন্তত ১০/১২জন আহত হয়।

এ ঘটনায় সিরাজুল ইসলামের পক্ষ থেকে নাসিক ২৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কামরুজ্জামান বাবুল সহ ২২ জনের বিরুদ্ধে বন্দর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে তারাও আমাদের বিরুদ্ধে পাল্টা আরেকটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। বর্তমানে পুরুষ দিয়ে নারীদের তারাবিহ নামায পড়া বন্ধ রয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর