বন্দরে বর ও কনেকে বেদম পিটিয়ে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৭:১৭ পিএম, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার
বন্দরে বর ও কনেকে বেদম পিটিয়ে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট

বন্দরে বরযাত্রীর ঘোড়ার গাড়ী বহরে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে বর ও কনেকে বেদম পিটিয়ে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ বন্দরে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে হামলার ঘটনায় জড়িত থাকার অপরাধে ৪ জন সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করেছে।

৬ ডিসেম্বর শুক্রবার রাতে বন্দর উপজেলার চোধুরীবাড়িস্থ আদমপুর ব্রীজের সামনে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ব্যাপারে বরের ছোট ভাই মিরাজ হোসেন বাদী হয়ে ঘটনার ওই রাতে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে এবং ১০/১২ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে বন্দর থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

গ্রেপ্তারকৃত সন্ত্রাসীরা হলো বন্দর কাজীবাড়ি এলাকার আনোয়ার হোসেন মিয়ার ছেলে পাভেল (২০), পুরান বন্দর খালপাড় এলাকার মৃত হাফেজ খানের ছেলে এমদাদুল হক (২২), একই এলাকার চাঁন মিয়ার ছেলে আবুল কালাম (২৪) ও একই এলাকার কবির হোসেন মিয়ার ছেলে মোহাম্মদ হোসেন (২২)। পলাতক রয়েছে একই এলাকার শামীম নামে আরো এক সন্ত্রাসী।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় বন্দর উপজেলার কুশিয়ারা এলাকার শফিউদ্দিন মিয়ার ছেলে মিরাজ হোসেন তারেই বড় ভাই রাকিব (৩২) এর বিবাহ শেষে ঘোড়ার গাড়ী যোগে বরযাত্রী নিয়ে বাড়ি ফিরছিল। বরযাত্রীর ঘোড়ার গাড়ীটি আদমপুর ব্রীজের সামনে আসলে ওই সময় পূর্ব পরিকল্পিতভাবে উল্লেখিত সন্ত্রাসীরা লোহার রড ও লাঠিসোটা নিয়ে বরযাত্রী উপর হামলা চালায়। ওই সময় হালকারিরা বর ও কনেসহ বরের ছোট ভাই মিরাজকে বেদম পিটিয়ে নগদ ১ লাখ টাকা, ২টি মোবাইল ফোন ও ১০ ভড়ি স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেয়। ওই সময় হামলাকারীরা একটি মটর সাইকেল ভাংচুর করে ২০ হাজার টাকা ক্ষতি সাধন করে। এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে বন্দর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ধৃত ৪ সন্ত্রাসীকে শনিবার দুপুরে উক্ত মামলায় আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর