ক্ষোভ থেকে আত্মহত্যা! রূপায়ন টাউনে শ্রীলংকার নারীর লাশ উদ্ধার


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৪:২৬ পিএম, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার
ক্ষোভ থেকে আত্মহত্যা! রূপায়ন টাউনে শ্রীলংকার নারীর লাশ উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ভূইগড়ে রূপায়ন টাউন থেকে শ্রীলংকার নাগরিক নারী রেবেকা নির্মানীয়া সম্পার (২৮) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (৯ ডিসেম্বর) দুপুর রূপায়ন টাউনের ১১ নাম্বার ভবন থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি কুনচুঙ্গা নামক বায়িং হাউজের মার্চেন্ডাইজার হিসেবে কর্মরত।

রূপায়ন টাউনের উপদেষ্টা ও নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন জানান, ১১ নং বিল্ডিংটি ইন্ডিয়ান ব্যবসায়ীরা কিনে নিয়েছে। এ বিল্ডিংটি ৮তলা। এতে ২৮টি ফ্ল্যাট রয়েছে। এখানে তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের স্টাফ অর্থাৎ ইন্ডিয়ান ও শ্রীলংকান নাগরিকেরা বসবাস করেন। এ বিল্ডিংয়ে ইন্ডিয়ানদের নিজস্ব নিরাপত্তারক্ষী রয়েছে এবং বিল্ডিংটির চারপাশে লোহার রড দিয়ে নিরাপত্তা বেষ্টনীও রয়েছে।

তিনি আরো জানান, শুনেছি শ্রীলংকার ওই নারী ফ্যানের সঙ্গে ওড়না বেধে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। পুলিশ ওই নারীর মোবাইল থেকে প্রেম ভালোবাসার কিছু ম্যাসেজও সংগ্রহ করেছে। তবে ধারণা করা হচ্ছে প্রেম ভালোবাসার কোন ঘটনায় সে আত্মহত্যা করেছে। রেবেকা এ ফ্ল্যাটে তার ফুফু কুমুদিনি বানদেরার সঙ্গে থাকতেন। তাদের ফ্ল্যাটে সিলেট জেলার রুজি নামে একজন কাজের গৃহপরিচারিকা কাজ করতেন।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, ব্যক্তিগত ক্ষোভ থেকেই মানুষ আত্মহত্যা করে। তবে ময়না তদন্তের রিপোর্ট আসলে মৃত্যুর সঠিক কারণ বলতে পারবো। রেবেকার ফুফু কুমুদিনি বানদেরা তাদের দেশে শ্রীলংকায় গিয়েছে হয়তো কয়েকদিনের মধ্যে চলে আসবেন। তাদের ফ্ল্যাটের গৃহপরিচারিকা রুজিকে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে পেরেছি সকালে রেবেকা খাবার তৈরীর জন্য রুজিকে বলে তার কক্ষে প্রবেশ করে দরজা বন্ধ করে দেয়। এরপর দীর্ঘ সময় দরজা না খোলায় রুজি আশপাশের লোকজনকে ডেকে এনে দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে ঝুলন্ত অবস্থায় রেবেকাকে দেখে থানায় খবর দেয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর