হাটে ক্রেতা বাড়ছে


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:০৮ পিএম, ৩০ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার
হাটে ক্রেতা বাড়ছে

প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের কারণে লন্ডভন্ড হয়ে পড়েছে জনজীবন। নানা শ্রেণি পেশার মানুষের মাঝে দেখা দিয়েছে অর্থাভাব। আর সেই অর্থাভাবের প্রভাব পড়েছে মুসলমানদের পবিত্র ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আযহার কুরবানীর গরুর হাটে। নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন জায়গায় গড়ে উঠা কুরবানী গরুর হাটগুলোতে গরু আসতে শুরু করলেও শুরুতে ছিল ক্রেতা কম। কিন্তু বুধবার ২৯ জুলাই রাত থেকে ক্রেতা বাড়তে শুরু করেছে।

জানা যায়, প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে অন্যবছরের চেয়ে এবার নারায়ণগঞ্জে গরুর হাটের সংখ্যা কমিয়ে আনা হয়েছে। সেই সাথে নারায়ণগঞ্জ শহরে কোনো হাট রাখা হয়নি। এবার নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ৯টি, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ১১টি, বন্দর উপজেলায় ১টি, সোনারগাঁ উপজেলায় ১৭ টি, সোনারগাঁ পৌরসভা ১টি, রূপগঞ্জ উপজেলায় ১০টি, তারাবো পৌরসভা ২টি, আড়াইহাজার উপজেলা ১৬ টি, গোপালদী পৌরসভায় ২টি এবং আড়াইহাজার পৌরসভায় ২টি সহ মোট ৭১ টি গরুর হাট রয়েছে।

আর এসকল হাটগুলোতে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে গরু আসা শুরু করেছে। ধীরে ধীরে গরু দ্বারা পূর্ণ হয়ে উঠছে হাটগুলো।

সৈয়দপুর কড়ইতলা পাঠান নগর মাঠের গরু ব্যবসায়ী আক্কাস মিয়া জানান, তিনি সিরাজগঞ্জ এলাকা থেকে ১২ টি গরু নিয়ে আসছেন এই হাটে। তার এখানে ৬ লাখ টাকা থেকে শুরু করে সর্বনি¤œ ১ লাখ টাকা দামের গরু রয়েছে।

একইভাবে ফতুল্লা ডিআইটি হাটের গরু ব্যবসায়ী আব্বার মিয়া জানান, তিনি সিরাজগঞ্জ থেকে ২৪ নিয়ে গরু নিয়ে গত দুইদিন এই হাটে এসেছেন। তার এখানেও বিভিন্ন মূল্যের গরু রয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ৮মার্চ রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) এর তথ্য অনুযায়ী দেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত তিনজন শনাক্ত করে। তিনজনের মধ্যে একজন নারী ও দুইজন পুরুষ। আক্রান্ত দুইজন দুই পরিবারের। তারা ইতালি থেকে বাংলাদেশে এসেছেন। তাদের মাধ্যমে অপরজন আক্রান্ত হয়েছেন। আর তাদের বাড়ি ছিল নারায়ণগঞ্জে। এরপর নারায়ণগঞ্জে প্রথম করোনা রোগীর মৃত্যু গত ৩০ মার্চ।

এরপর থেকেই নারায়ণগঞ্জের সবকিছুতে স্থবিরতা চলে আসে। টানা কয়েক মাস ধরে লকডাউন। আর সেই লকডাউনের ফলে লন্ডভন্ড হয়ে যায় নারায়ণগঞ্জবাসীর স্বাভাবিক জীবনযাত্রায়। যার প্রভাব এখনও কাটিয়ে উঠতে পারছেন না নারায়ণগঞ্জবাসী। এখনও অনেক পরিবারকে পরিস্থিতি সামলাতে হিমশিম খেে হচ্ছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর