rabbhaban

রূপগঞ্জে প্রবীণ জনগোষ্ঠীকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান


রূপগঞ্জ করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৬:৪৪ পিএম, ২৬ জুলাই ২০১৯, শুক্রবার
রূপগঞ্জে প্রবীণ জনগোষ্ঠীকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান

“প্রবীণরা সুস্থ থাকলে সুস্থ থাকবে বাংলাদেশ” শ্লোগানে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে দিনব্যাপী বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান করেছে জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত সামাজিক সেবামূলক সংগঠন প্যারেন্টস এইজিং ফাউন্ডেশন।

২৬ জুলাই শুক্রবার সকাল নয়টা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত উপজেলার নোয়াপাড়া এলাকায় তারাব পৌর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্পের আয়োজন করে তিনটি ওয়ার্ডের এক হাজারেরও বেশি প্রবীণ নারী-পুরুষ এই চিকিৎসাসেবা গ্রহণ করেন। নোয়াপাড়ার ঐতিহ্যবাহি জামদানি পল্লীর প্রবীণ জামদানি শিল্পীদের সেবা প্রদানের উদ্দেশ্যেই মূলত এই মেডিক্যাল ক্যাম্পের আয়োজন করে সংগঠনটি।

অসহায় এসব প্রবীণ নারী ও পুরুষকে পৃথকভাবে বিনামূল্যে রক্তচাপ সহ রক্তের বিভিন্ন পরীক্ষা, রক্তের গ্রুপ নির্ধারণ, ডায়াবেটিক পরীক্ষা ও চক্ষু পরীক্ষাসহ চোখের ড্রপ এবং ব্যবস্থাপত্র প্রদান করেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা। বিনামূল্যে এই স্বাস্থ্যসেবা পেয়ে সেবা গ্রহণকারীরা জানান, তারা বেশ উপকৃত হয়েছেন। সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় নিয়মিত এ ধরনের সেবামূলক কার্যক্রমের ধারাবাহিতকা অব্যাহত রাখার দাবীও করেন তারা।

দেশের অসহায় প্রবীণ জনগোষ্ঠীকে চিকিৎসাসেবা প্রদান, তাদের জীবনের মান উন্নয়ন এবং তাদেরকে আত্মনির্ভশীল করে গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে এর প্রতিষ্ঠাতার ব্যক্তিগত অর্থায়ন এবং উদ্যোগে কিছু মেধাবী তরুণকে সাথে নিয়ে ২০১৬ সালের ২৫ জুন আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করে প্যারেন্টস এইজিং ফাউন্ডেশন নামের সেবামূলক এই প্রতিষ্ঠানটি।

প্যারেন্টস এইজিং ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক রুবেল মিয়া নাহিদ জানান, এরই মধ্যে দেশের সরকারি বেসরকারি ২১টি বিশ্ববিদ্যালয় ২৭টি জেলায় সংগঠনটির শাখা সম্প্রসারণ হয়েছে। প্রবীণদের সেবায় নানা কর্মসূচী পালন করে দেশে ব্যাপক সফলতা ও পরিচিতি অর্জন করে তারা। যার ফলশ্রুতিতে মাত্র এক বছরের মধ্যেই ২০১৭ সালে জয় বাংলা ইয়ুথ এ্যাওয়ার্ড অর্জন করে সংগঠনটি। বর্তমানে সারা দেশের এক হাজারেরও বেশি তরুণ-তরুণী স্বেচ্ছাসেবক সদস্য হিসেবে এই সংগঠনের সাথে যুক্ত রয়েছেন। তাদের মধ্যে ৪টি মেডিকেল কলেজের বেশ কিছু চিকিৎসক এবং শিক্ষার্থীও রয়েছেন।

সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি আবদুল্লাহ আল যুবায়ের বলেন, নিজের বাবার বার্ধক্য জীবনকে উপলব্ধি করেই প্রবীণ জনগোষ্ঠীর সেবায় তিনি উদ্বুদ্ধ হয়েছেন এবং সেই লক্ষ্যেই তিনি এগিয়ে চলছেন। দেশের দেড় কোটি প্রবীণ জনগোষ্ঠীকে সেবা প্রদানের পাশাপাশি দেশের বাইরেও তাদের সেবার পরিধি বাড়ানোর পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করেন তিনি।

আবদুল্লাহ আল যুবায়ের আরো জানান, পরিবহনে যাত্রী হিসেবে চলাচলে, হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গিয়ে এবং ব্যাংকে লেনদেনের কাজে অবসরপ্রাপ্ত প্রবীণরা প্রতিদিন নানাভাবে হয়রানি এবং ভোগান্তির শিকার হয়ে থাকেন। ব্যাংকে দেশের গণপরিবহনগুলোতে প্রবীণদের জন্য তিনটি নির্ধারিত সীট বরাদ্ধ রাখা, সরকারি হাসপাতাল ও ব্যাংকগুলোতে ভোগান্তি থেকে রেহাই পেতে আলাদা লাইনের ব্যবস্থা সহ প্রবীণদের ডিজিটাল বাংলাদশের সেবার আওতায় আনতে সরকারের কাছে বেশ কিছু দাবিও রাখেন সংগঠনটির এই শীর্ষ কর্মকর্তা।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর