rabbhaban

শো ডাউন শেষে আরাফাত : জাপার চাপায় অবহেলিত থাকতে চাই না


সিটি করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:২১ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শনিবার
শো ডাউন শেষে আরাফাত : জাপার চাপায় অবহেলিত থাকতে চাই না

নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিএম আরাফাত বলেছেন, নারায়ণগঞ্জ একটি ঐতিহ্যবাহী জেলা। এই নারায়ণগঞ্জ থেকে আওয়ামীলীগের জন্ম হয়েছে। কিন্তু তারপরেও দীর্ঘদিন ধরে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে জাতীয় পার্টির দ্বারা আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা অবহেলিত হয়ে আসছে। আমরা আর অবহেলিত থাকতে চাই না। আগামী সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে নৌকা প্রার্থী চাই। সে যে কেউ হোক না কেন, আমরা তাকে মেনে নিব। কিন্তু আওয়ামীলীগের কর্মী হতে হবে।

২২ সেপ্টেম্বর শনিবার বিকেলে শহরের দুই নং রেলগেইট আওয়ামীলীগের কার্যালয়ের কার্যালয়ের সামনে শোডাউন পরবর্তী বক্তৃতায় আরাফাত এসব কথা বলেন। এর আগে দেওভোগ পাক্কা রোড এলাকার ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু করে চাষাড়া গোল চত্ত্বর হয়ে ডিআইটি এলাকা প্রদক্ষিণ করে ২নং রেলগেইট পর্যন্ত একটি আগামী সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে নৌকার পক্ষে বিশাল শোডাউন অনুষ্ঠিত হয়।

শোডাউন উপলক্ষে এদিন দুপুরের পর থেকেই রূপগঞ্জ, বন্দর, শহর, ফতুল্লা এলাকার ছাত্রলীগ, যুবলীগ, শ্রমিকলীগ ও মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা দেওভোগ পাক্কা রোড এলাকায় একত্রিত হতে থাকেন।

বিকাল ৪টায় আরাফাতের নেতৃত্বে নৌকার প্রচারণা সম্বলিত টি-শার্ট গায়ে দিয়ে ঢাক ঢোল পিটিয়ে নগরীতে স্মরণকালের বিশাল শোডাউন করেন। ফলশ্রুতিতে জিএম আরাফাতের নেতৃত্বে প্রায় ঘন্টাখানেক সময়ের নগরী হয়ে আওয়ামীলীগের নৌকাময়।

আরাফাত বলেন, আমি ছাত্রজীবন থেকেই বঙ্গবন্ধুর স্লোগান দিয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে রাজনীতি করে আসছি। নারায়ণগঞ্জে যখন আওয়ামীলীগের দু:সময় ছিল তখনও আমরা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে মিছিল করেছি। মিছিল করার কারণে আমাকে প্রধান আসামী করা হয়েছিল। আজকে আমরা যারা মিছিল করেছি তারা প্রত্যেকেই লাঞ্ছিত। আর তাই আমরা আর লাঞ্ছিত হতে চাই না। আগামী দিনে আমরা নৌকা চাই।

শোডাউনে অংশগ্রহণকারী সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে তিনি আরও বলেন, ছাত্রলীগের সাবেক নেতাকর্মীরা আগামী সংসদ নির্বাচনে দেশের বিভিন্ন এলাকায় প্রার্থী হবেন। আমার বন্ধু গাজীপুরের মেয়র হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে। আগমী দিনে নৌকা বিজয়কে নিশ্চিত করতে আমরা ঐক্যবদ্ধ আছি। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা যে কোন আন্দোলন সংগ্রামে থাকবো। আমাদের প্রতি কোন গুরুদায়িত্ব দিলে আমরা সেই দায়িত্ব পালনে সচেষ্ট থাকবো।

জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেলিম হাসান দিনারের সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন, মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিন, সিটি করপোরেশনের সাবেক প্যানেল মেয়র মনিরুজ্জামান মনির, মহানগর আওয়ামীলীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মীর আনোয়ার হোসেন, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. আতিকুজ্জামান সোহেল, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন শিলু, গাজী আব্দুর রশিদ, সদস্য ফাইজুল পারভেজ, বন্দর থানা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের সভাপতি আসিফ প্রধানসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
রাজনীতি এর সর্বশেষ খবর
আজকের সবখবর