paradise

নির্বাচনে শামীম ওসমানের গোল!


সিটি করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:২৮ পিএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার
নির্বাচনে শামীম ওসমানের গোল!

নারায়ণগঞ্জের আলোচিত মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে এমপি শামীম ওসমান একজন। তাকে ঘিরে আলোচনা সমালোচনা জেলার গন্ডি পেরিয়ে সারা দেশের ছড়িয়ে পড়েছে। নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি সেলিম ওসমান ছাড়া তেমন কোন মনোনয়ন প্রত্যাশী নেই। এছাড়া আওয়ামীলীগের বাকি দুই জন বিতর্কিত মনোনয়ন প্রতাশী থাকলেও তারা এখন অনেকটা ব্যাকফুটে রয়েছে।

এদিকে জাতীয় কালের কণ্ঠ পত্রিকায় আওয়ামীলীগের ৩শ আসনের মধ্যে ৬৭ জনের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে; সেই তালিকায় এমপি শামীম ওসমানের নাম রয়েছে। অন্যদিকে বিএনপি দলটি হামলা, মামলায় অনেকটা বেকায়দায় পড়ে গেছে; যেকারণে তাদের নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা অনিশ্চিত প্রায়। তাই এই আসনে এমপি শামীম ওসমান অনেকটা ফাঁকা মাঠে নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

নির্বাচনের দিন যত ঘনিয়ে আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের তোরজোড় তত বেড়ে যাচ্ছে। আর নির্বাচনী প্রচারণায় তাদেরকে বেশ উৎসুক দেখা যাচ্ছে। এর মধ্যে এমপি শমীম ওসমান প্রথম থেকেই তৃণমূলে কাছে ভোট চেয়ে আসছেন। তবে সম্প্রতি মনোনয়ন ইস্যুতে নাটকীয়তা দেখা যাচ্ছে। আর সেই নাটকীয়তার জল কেন্দ্রের পানি পর্যন্ত ঘোলা করছে।

সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে নৌ মন্ত্রী শাহজাহান খান নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে এমপি শামীম ওসমানের মনোনয়নের বিষয়টি অনেকটা নিশ্চিত করে গেছেন। এতে করে তার আসনে থাকা নৌকার দুই মনোনয়ন প্রত্যাশীর কপাল পুড়তে যাচ্ছে। এরই মধ্যে আইভী বলয় যে এমপি শামীম ওসমানের মনোনয়ন ইস্যুতে বেশ উত্তেজিত হয়ে পড়েছে। নৌ মন্ত্রীর ওই ঘোষণার পরের দিন কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল আসেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নগর ভবনে। নগর ভবনে মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর সঙ্গে মতবিনিময় সভা শেষে তিনি নৌ মন্ত্রী শাজাহান খানের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় বিরুপ মন্তব্য করে শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ তুলেন। এবং কারো মনোনয়ন এখনো চূড়ান্ত নয় বলে জানিয়েছেন। এতে করে দলের মধ্যে দ্বন্দ্ব  বিভক্তি আরো স্পষ্ট হচ্ছে। মনোনয়ন ইস্যুতে জেলার পাশাপাশি কেন্দ্রেও দ্বন্দ্ব বিভক্তি স্পষ্ট হচ্ছে।

কেন্দ্রীয় শ্রমিক নেতা কাউসার আহম্মেদ পলাশ চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসী সহ কর্মকা-ে বিতর্কিত হয়ে পড়েছেন। এই নেতা সরাসরি মেয়র আইভী বলয়ের সাথে জড়িত। এছাড়া আরেক পল্টিবাজ নেতা হিসেবে পরিচিত কামাল মৃধা রয়েছেন। এই নেতা কোন বলয়ের সান্নিধ্য লাভ করতে না পেরে অবশেষে অনেকটা গা ঢাকা দিয়ে চুপশে যায়। এছাড়া এই আসনে এখন পর্যন্ত জাতীয় পার্টির তেমন কোন মনোনয়ন প্রত্যাশী দেখা যায়নি।

এদিকে নির্বাচনী বছরের শুরু থেকে হামলা, মামলা, জেল, জুলুমের মধ্য দিয়ে বিএনপি দলের নেতাকর্মীরা অনেকটা বেকায়দায় পড়ে গেছেন। একের পর এক ধারাবাহিকাভাবে এই দলের নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা-গ্রেফতারের চিত্র দেখা যাচ্ছে। যেকারণে বিএনপি দলটি কোনভাবেই ঘুরে দাঁড়াতে পারছেননা। আর দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দুর্নীতি মামলায় এখনো জেলে রয়েছেন। দলের এরুপ পরিস্থিতিতে দলের নেতারা নির্বাচনে অংশগ্রহণের বিষয়ে কোনভাবেই চিন্তা করতে পারছেনা বলে জানান। তবে নির্বাচনী পরিবেশ ফিল আসলে তার নিশ্চই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে বলে জানান। এতে করে বিএনপি দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নির্বাচনে অংশগ্রহণ প্রায় অনিশ্চিত।

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনটিতে এসব কারণে এমপি শামীম ওসানের পথ অনেকট ফাঁকা। তার আসনে আর তেমন কোন প্রতিদ্বন্দ্বী নেই বললেই চলে। এতে করে তার নির্বাচনী মাঠ অনেকটা ফাঁকা। তাই ফের এমপি শামীম ওসমান এই আসনের এমপির চেয়ারে বসেত যাচ্ছেন এটা অনেকটা নিশ্চিত। কেননা, এই আসনের ফাঁকা মাঠে তাকে ছাড়া এখন আর কাউকে দেখা যাচেছনা।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ‘এখন পর্যন্ত প্রেক্ষাপটের ভিত্তিতে এই আসনে এমপি শামীম ওসমানের মাঠ ফাঁকা দেখা যাচ্ছে। তাতে করে তার বিজয়ের ধারা অব্যাহত থাকবে বলে মনে হচ্ছে। তবে রাজনীতিতে শেষ বলে কিছু নেই। তাই এখন পর্যন্ত নির্বাচনের অনেকটা সময় বাকি আছে। আর সেই সময়ে যদি কোন অঘটনা ঘটে তাহলে এই এমপির ফাঁকা মাঠের চেহারা পাল্টে যেতে পারে। কারণ তার ঘোর বিরোধীতা করে দক্ষিন মেরুর রয়েছে মেয়র আইভী। আইভী বলয় চাইবে যে কোন মূল্যে ওসমান বলয়ের মনোনয়ন ঠেকাতে। আর আইভী বলয়ের জাদুতে যদি মনোনয়নের টিকিট হাতছাড়া হয়ে যায় তাহলে সব শেষ হয়ে যাবে। আর মনোনয়নের টিকিট ছাড়াও অন্য কোন বিকল্প পন্থায়ও এই আইভী বলয় শামীম ওসমানকে ঠেকাতে চেষ্টা করতে পারে যা বিগত দিনে দেখা গেছে। তাই সর্বশেষ প্রেক্ষাপটে এমপি শামীম ওসমানের মাঠ ফাঁকা রয়েছে এই বিষয়টি এখন পর্যন্ত নিশ্চিত।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
-->
newsnarayanganj24_address
রাজনীতি এর সর্বশেষ খবর
আজকের সবখবর