rabbhaban

ঝুলে আছে নারায়ণগঞ্জের ৩টি আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:১৬ পিএম, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, সোমবার
ঝুলে আছে নারায়ণগঞ্জের ৩টি আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা

দিন যতই যাচ্ছে ততই ঘনিয়ে আসছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। সে হিসেবে দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলো দলীয় প্রার্থী নির্ধারণ করা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ইতিমধ্যে বিভিন্ন আসনে ক্ষমতানসীন দল আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থীদের নাম প্রকাশ নিয়ে সংবাদও প্রচারিত হচ্ছে। যার মধ্যে নারায়ণগঞ্জ-৪ ও নারায়ণগঞ্জ-২ আসনে দলীয় প্রার্থীর নাম রয়েছে। তবে এই দুইটি আসনে মোটামুটিভাবে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী নির্ধারিত হয়ে গেলেও এখন ঝুলে রয়েছে নারায়ণগঞ্জের বাকী ৩টি আসন। সে আসনগুলোর দলীয় প্রার্থীদের নাম জানার জন্য আরও কয়েকদিন অপেক্ষা করতে হবে বলে মনে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

জানা যায়,  গত ৮ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছেন। সেই তফসিল অনুযায়ী আগামী ২৩ ডিসেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা বললেও পরবর্তীতে নির্বাচন কমিশন সেই সময় পিছিয়ে আগামী ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করেছেন। একই সাথে মনোনয়পত্র দাখিলের শেষ সময় নির্ধারণ করেছেন ২৮ নভেম্বর।

নির্বাচন কমিশন এই তফসিল ঘোষণার পরদিন থেকেই আওয়ামীলীগ মনোনয়ন ফরম বিক্রয় করা শুরু করে। যারা ধারাবাহিকতায় নারায়ণগঞ্জের-৫টি আসনের মধ্যে নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনে ৩২ জন, নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) আসনে ৬ জন, নারায়ণগঞ্জ-৩ (রূপগঞ্জ) আসনে ১৫ জন, নারায়ণগঞ্জ-৪ (সদর-বন্দর) আসনে ৫ জন এবং নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে ১০ জন আওয়ামীলীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।

নেতাকর্মীদের সূত্রে জানা গেছে, গত ১৪ নভেম্বর মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সঙ্গে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রধান শেখ হাসিনার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে এখনও ঘোষণা দেয়া হয়নি কে প্রার্থী হচ্ছেন। নেত্রী বলে দিয়েছেন মূলত দলের ত্যাগী ও সাধারণ মানুষের সঙ্গে যার যোগাযোগ বেশি সেই হবেন আগামী নির্বাচনে নৌকার মাঝি। দল যাকে ঘোষণা দিবে তার পক্ষেই কাজ করতে হবে। বিরুদ্ধে গেলে আজীবন দল থেকে বাদ। তাই সবাইকে দলের পক্ষে কাজ করতে হবে।

এদিকে আগামী ৩০ নভেম্বর থেকেই দলীয় প্রচার প্রচারণা কাজ শুরু হবে। সেই হিসেবে আগামী ২৮ নভেম্বর প্রার্থীতা প্রত্যাহার করা হবে। ফলে আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই দেশের সকল আসনের প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে। যার ধারাবাহিকতায় ইতিমধ্যে দলীয় প্রার্থী হিসেবে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে শামীম ওসমান এবং নারায়ণগঞ্জ-২ আসনে নজরুল ইসলাম বাবুর নাম বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচারিত হচ্ছে। তবে এখনও ঝুলে রয়েছে নারায়ণগঞ্জের বাকী তিনটি আসন। যার মধ্যে রয়েছে নারায়ণগঞ্জ-১, ৩ ও ৫ আসন।

অন্যদিকে এই তিনটি আসনে মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে জাতীয় পার্টির লাঙল প্রতিকের প্রার্থী দেয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে এ আসনগুলোতে আওয়ামীলীগ ও জাতীয় পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে এখনও শঙ্কা দূর হচ্ছে না। বিশেষ করে নারায়ণগঞ্জ-৩ ও নারায়ণগঞ্জ-৫ সংসদীয় এলাকার নেতাকর্মীদের মধ্যে নৌকা আর লাঙল নিয়ে চলছে দর-কষাকষি। এখানকার আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা নৌকা আর লাঙল নিয়ে দুই ভাগে বিভক্ত। তবে প্রার্থীদের নাম জানার জন্য বেশিদিন অপেক্ষা করতে হবে। আগামী দুই তিনদিনের মধ্যেই অপেক্ষার প্রহর কেটে যাবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর