rabbhaban

বক্তাবলী ইউনিয়ন যুবলীগে আসতে চায় তরুণ প্রজন্ম


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:১৩ পিএম, ১৪ মে ২০১৯, মঙ্গলবার
বক্তাবলী ইউনিয়ন যুবলীগে আসতে চায় তরুণ প্রজন্ম

নারায়ণগঞ্জ জেলা যুবলীগের কমিটি গঠনের কোন অস্তিত্ব না থাকলেও বক্তাবলী ইউনিয়ন যুবলীগের কমিটি গঠনের তোরজোর শুরু করে দিয়েছে তরুণ প্রজন্ম। অনেক তরুণ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দরা ইউনিয়ন যুবলীগকে শক্তিশালী করার প্রত্যয় নিয়ে সামনের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। নতুন নেতৃত্ব এবং তরুন প্রজন্মদের নিয়ে বক্তাবলী ইউনিয়ন যুবলীগ শক্তিশালী একটি কমিটি চায় তৃনমূলের নেতাকর্মীরা।

এদিকে আগামীতে বক্তাবলী ইউনিয়ন যুবলীগের যারাই নেতৃত্বে আসতে চাইছেন তারা ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও বক্তাবলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত আলীর নেতৃত্বে রাজনীতি করতে চায়। তারা মনে করেন বক্তাবলী আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের অভিভাবক হচ্ছেন শওকত আলী। সেই অভিভাবকের নির্দেশক্রমে রাজনীতি করতে চায় এবং বক্তাবলী ইউনিয়ন যুবলীগকে একটি শক্তিশালী কমিটি উপহার দিতে চায়। আর বিগত সময়ে যারা যুবলীগের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন তারা যুবলীগকে শক্তিশালী কিংবা সু সংগঠিত করার কোন চেষ্টা করেনি। যার কারণে নতুন নেতৃত্বদানকারীরা যুবলীগকে সু সংগঠিত করার প্রত্যয় নিয়ে একজন অভিভাবকের হাত ধরে সকল কার্যক্রম করার আগ্রহ প্রকাশ করেন।

দলীয় সূত্র মতে জানা যায়, গত এক যুগের বেশি সময়ে বক্তাবলী ইউনিয়ন যুবলীগের কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির সভাপতি হিসাবে রয়েছেন সদর উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আলী হোসেন। তাদের নেতৃত্বে দীর্ঘদিন ধরে যুবলীগের কর্মক্রম চলে আসছিল। তারা এখন যুবলীগের রাজনীতিতে নিস্ক্রিয় ভূমিকায় রয়েছে। যারা যুবলীগের পদ বহন করছে তারা এখন যুবলীগের রাজনীতি করার আগ্রহ কম দেখা যাচ্ছে। ইউনিয়ন যুবলীগের কমিটির নেতৃবৃন্দরা যার যার মত করে রাজনীতি করার ফলে তরুণ প্রজন্মরা ইউনিয়ন যুবলীগের নেতৃত্বে আসতে চাইছেন। তারা এখন বিভিন্ন ভাবে রাজনীতিতে সক্রিয় ভুমিকা পালন করছে। যেমন মাশফিকুর রহমান শিশির, মহিউদ্দিন ভূইয়া, বাদল হোসেন ববি, রাশেদুল ইসলাম সুমন, রাসেল চৌধুরী, মাহমুদুল হাসান, আব্দুল মান্নান, মাসুম, আনোয়ার আলী, রিয়াদ চিশতীসহ আরো অনেকেই। এদের মধ্যে যুবলীগের রাজনীতিতে বেশি সক্রিয় রয়েছে বাদল হোসেন ববি, রাশেদুল ইসলাম সুমন, রাসেল চৌধুরী, মহিউদ্দিন ভূইয়া।

তারা বক্তাবলী ইউনিয়ন যুবলীগকে একটি শক্তিশালী কমিটি গঠনের মাধ্যমে যুবলীগকে সু-সংগঠিত করতে চায়। এমনকি তারা বক্তাবলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত আলীর নির্দেশক্রমে বক্তাবলীর মাটিতে আওয়ামীলী যুবলীগের রাজনীতি করতে চায়।

বাদল হোসেন ববি জানান, বক্তাবলী ইউনিয়ন যুবলীগকে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ ও মাদকমুক্ত একটি শক্তিশালী কমিটি হিসাবে দেখতে চাই। যুবলীগের রাজনীতিতে সন্ত্রাস ও জবর দখল দেখতে চাই না। বর্তমানে যারা যুবলীগের নেতৃত্বে রয়েছেন তারা আমার বড় ভাই সম্মানী ব্যক্তি। তাদেরকে সম্মান দিয়ে বলতে চাই বিগত সময়ে যুবলীগের যতটুকু শক্তিশালী ছিলো তার চেয়ে অনেকটাই শক্তিশালী করার চেষ্টা করা হবে। আমরা তরুন প্রজন্ম যারা বক্তাবলী ইউনিয়ন যুবলীগের হাল ধরতে চাই তারা যেন বক্তাবলী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কান্ডারী ও আমাদের সকলের অভিভাবক বক্তাবলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত আলীর নির্দেশক্রমে দলের কার্যক্রম করে ইউনিয়ন যুবলীগকে একটি শক্তিশালী কমিটি গঠন করা যায় সেই লক্ষ্য নিয়ে কাজ করা উচিৎ।

ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বক্তাবলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত আলী জানান, আগামীতে তরুন প্রজন্ম থেকে যদি যুবলীগের নেতৃত্বে আসতে চায় আমার তরফ থেকে সকল ধরনের সহযোগিতা থাকবে। সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ, জবরদখল ও মাদক ব্যবসায়ীমুক্ত একটি ইউনিয়ন যুবলীগের কমিটি গঠিত হউক সেটা আমি প্রত্যাশা করি। ঈদের পর বক্তাবলী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দদের নিয়ে একটি সভার আয়োজন করে দলকে সু-সংগঠিত করা হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর