rabbhaban

শুক্রবার অবস্থান কর্মসূচী নারায়ণগঞ্জ ছাত্রদলের


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:১৪ পিএম, ২২ মে ২০১৯, বুধবার
শুক্রবার অবস্থান কর্মসূচী নারায়ণগঞ্জ ছাত্রদলের

নারায়ণগঞ্জ জেলার অধীনস্থ ৫টি থানার ছাত্রদলের শীর্ষ নেতাদের দেয়া ৭ দিনের আল্টিমেটাম শেষ হওয়ায় ও এ সময়ের মধ্যে তাদের দাবি না মানায় অবস্থান কর্মসূচী ঘোষণা করেছেন তারা।

বুধবার (২২ মে) সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাং রোডের এআর রহমান মার্কেটের তিন তলায় একটি রেস্টুরেন্টে এক ইফতার অনুষ্ঠানে ছাত্রদল নেতারা নিজেদের মধ্যে বৈঠক শেষে এ কর্মসূচী ঘোষণা করেন। বৈঠকে থাকা ছাত্রনেতারা কর্মসূচীর তথ্য নিশ্চিত করেছেন

শুক্রবার ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা তাদের দাবি না মানার প্রতিবাদে ও নিজেদের দাবির প্রতি আরো দৃঢ় সমর্থন জানিয়ে দলের নয়াপল্টন কার্যালয়ের ছাত্রদলের অফিসে অবস্থান কর্মসূচী পালন করবে। একই সাথে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী দলের সকল কর্মসূচী এখন থেকে জেলার নেতাদের সাথে পালন না করে থানার নেতারা আলাদা ব্যানারে পালন করবেন তারা।

এতে উপস্থিত ছিলেন ফতুল্লা থানা ছাত্রদল নেতা ইঞ্জিনিয়ার সাইদ রেজা খান, হৃদয় ভূইয়া, কামরুল হাসান সজীব, নুর ইসলাম শাহেদ, সোনারগাঁও থানা ছাত্রদল নেতা মোহাম্মদ কাউসার, সোহেল রানা, নোবেল মীর, আল আমিন ব্যাপারী, ইকবাল প্রধান, দিপু চৌধুরী, আল আমিন মোল্লা, রুপগঞ্জ থানা ছাত্রদল নেতা সুজন আহমেদ, আল আমিন সরকার, মামুন মিয়া, মাসুম বিল্লাহ, আলামিন মিয়া, আড়াইহাজার থানা ছাত্রদল নেতা মীর মেহেদী হাসান, রাফেল, শাহীন প্রমুখ।

এর আগে গত ১৫ মে এক ইফতার মহফিলে থানা ছাত্রদলের নেতারা দুটি দাবিতে ৭ দিনের আল্টিমেটাম দেয় জেলা ছাত্রদলকে। পরে একটি বিবৃতিও দেয় তারা।

বিবৃতিতে তারা বলেন, ১৮ থেকে ১৯ বছরের থানা কমিটির বন্ধ্যাত্ব না গুছিয়ে জেলা ছাত্রদলের শীর্ষ নেতাদের একাধিক পদের উচ্চ লালসা ও থানা কমিটি গঠনে চরম অনীহা আমরা পাঁচটি থানা ছাত্রদলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ মোটেও ভালো চোখে দেখছি না। থানা ও ইউনিট কমিটি গুলো গঠন না করে জেলা ছাত্রদলের পদধারী নেতারা আবার নেতা হওয়ার চরম লজ্জাজনক ও ঘৃণিত গোপন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। জেলার শীর্ষ দুই নেতা ইতোমধ্যে জেলা বিএনপির দুটি গুরুত্বপূর্ণ পদ যথাক্রমে জেলা ছাত্রদলের ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক ও সহ ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক পদ দুটি তাদের দখলে নিয়ে নিয়েছেন। এছাড়া জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ পদ পাওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন তারা। এই লক্ষ্যে দেশ বিদেশে জোরালো লবিংও করছেন তারা। তৃণমূলকে সাংগঠনিকভাবে পরিচয়হীন রেখে তাদের ক্ষমতা কুক্ষিগত করার উচ্চবিলাসী মনোভাব ও চরম স্বেচ্ছাচারিতা আমরা কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছি না।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর