শামীম ওসমান আহতের কারণেই মেয়রের অপরাজনীতি


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:৩৬ পিএম, ১৬ জুন ২০১৯, রবিবার
শামীম ওসমান আহতের কারণেই মেয়রের অপরাজনীতি

নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাফায়েত আলম সানী বলেছেন, চাষাঢ়ায় আওয়ামী লীগ অফিসে বোমা হামলায় যারা নিহত হয়েছে তারা এ প্রজন্মের মুক্তিযোদ্ধা। তাদেরকে মূল্যায়ন করা উচিত। কিন্তু তাদের নাম ফলকের পাশে ময়লার ডাস্টবিন রেখে সিটি কর্পোরেশন বিকৃত মানসিকতার পরিচয় দিয়েছে। যেহেতু এই ঘটনায় শামীম ওসমান আহত হয়েছিলেন, আর সেই কারণেই সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ময়লার ডাস্টবিন রাখার মাধ্যমে অপরাজনীতির বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছেন। ময়লার ডাস্টবিন অপসারণ করা উচিত।

তিনি আরও বলেন, আমাদের মুক্তিযুদ্ধ এখনও অব্যাহত রয়েছে। এখনও দেশে বিএনপি জামাত বোমা হামলা চালায়। তাই আমরা বলি মুক্তিযুদ্ধ এখনও অব্যাহত রয়েছে। চাষাঢ়া বোমা হামলায় যারা নিহত হয়েছিল তাদের পরিবারের খোঁজ খবর নেয়া উচিত। যেহেতু সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগের, আর যারা নিহত হয়েছিলেন তারাও আওয়ামীলীগের। সে হিসেবে নিহত পরিবারের জন্য তারা আর্থিক অনুদানের ব্যবস্থা করতে পারেন।

১৬ জুন রোববার সকালে নিহতদের পরিবারবর্গের আয়োজনে চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাশে নাম ফলক সম্বলিত স্মৃতিস্তম্ভে ফুলের তোড়া দিয়ে শ্রদ্ধা জ্ঞাপনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রসঙ্গত ২০০১ সালের ১৬ জুন নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়াস্থ আওয়ামী লীগ অফিসে দেশের ভয়াবহ নৃশংস বোমা হামলায় মারা যান ২০ জন হতভাগ্য। সেদিন আহত হয়েছিলেন ওই সময়ের ও বর্তমান এমপি শামীম ওসমান সহ অর্ধ শতাধিক, অনেকেই বরণ করে নিয়েছে পঙ্গুত্ব, কেঁদে উঠেছিল নারায়ণগঞ্জবাসী। দীর্ঘ ১৮ বছরেও এ মামলার বিচার শেষ না হওয়ায় ক্ষোভ রয়েছে নিহত পরিবার ও আহতদের।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর