rabbhaban

আওয়ামী লীগের নেতাদের উপর ফুঁসছে তৃণমূলের কর্মীরা


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:৫৪ পিএম, ০৬ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার
আওয়ামী লীগের নেতাদের উপর ফুঁসছে তৃণমূলের কর্মীরা

নারায়ণগঞ্জে সাম্প্রতিক কিছু ঘটনায় আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের উপর ফুঁসে উঠতে শুরু করেছে দলের তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। তারা বলছেন, কর্মীদের উপর নানা কারণে জুলুম আর চাপ থাকলেও চেয়ারে বসে থাকা নেতারা কোন নড়ছেন না। বরং তাদের অনেকেই আবার প্রশাসনের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সমর্থন করায় এ চাপ ক্রমশ বাড়ছে। এ অবস্থায় ভবিষ্যতে নেতা নির্ধারণে আরো সচেষ্ট হবেন এমনও অভিমতও ব্যক্ত করেছেন কর্মীদের একটি বড় অংশ।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা জানান, কোন কর্মসূচীর র‌্যালি মিছিল হলে নেতারাই সামনের কাঁতারে থাকে। আমরা সাধারণ কর্মীরা থাকি পেছনের সারিতে। আমরা হাজার হাজার কর্মী নিয়ে নেতাদের পেছনে অবস্থান করি। কিন্তু নেতারা আমাদের বিপদে তাঁরা কোন খোঁজ খবর নেয় না।

সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকার একাধিক আওয়ামী লীগ কর্মী বলেন, ‘সম্প্রতি আমাদের বিরুদ্ধে ছেলে ধরা সন্দেহে গণপিটুনীতে হত্যার ঘটনায় মামলা হয়েছে। এমপি শামীম ওসমান, সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী বিবৃতি দিয়েছেন। কিন্তু মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন ও সেক্রেটারী খোকন সাহার কোন বিবৃতি আসেনি। এমনকি কর্মীদের ভরসা দিতে সিদ্ধিরগঞ্জেও কোন সভার আয়োজন করেনি।

একই কারণে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল হাই ও সেক্রেটারী আবু হাসনাত শহীদ বাদলের প্রতিও। তাঁরাও এ সময়ে কোন কর্মীর খোঁজ নেয়নি অভিযোগ অনেকের

জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে ছেলে ধরা সন্দেহে এলাকাবাসীর গণপিটুনীতে বাক প্রতিবন্ধী নিহত সিরাজ এবং একই দিন মানসিক প্রতিবন্ধী গুরুতর আহত হওয়ায় ঘটনায় দুটি মামলার আসামীর তালিকাতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নামও রয়েছে। এছাড়া ব্যবসায়ী অনেকের নামও আছে। ওই মামলায় ৭৬ জনের নাম উল্লেখ করে ৪০০ জনকে অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামী করেছে পুলিশ। সিরাজকে গণপিটুনীতে হত্যার ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এসআই সাখাওয়াত বাদি হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

সব সময় নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের শীর্ষ পদে থাকা নেতাদের কোন ভূমিকা রাখতে দেখা যাচ্ছে না। নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের অভিভাবক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেও তারা এই পরিস্থিতি থেকে উত্তলনের জন্য অভিভাবকত্ব ফলাতে পারছেন না। বরবারের মতোই নিরব থেকে যান নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হাই, সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ বাদল, মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর