rabbhaban

যেদিন খালেদার মুক্তি সেদিনই শেখ হাসিনার বিদায় ঘণ্টা


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:৩৮ পিএম, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
যেদিন খালেদার মুক্তি সেদিনই শেখ হাসিনার বিদায় ঘণ্টা

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদ বলেছেন, যেদিন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি হবে সেদিনই শেখ হাসিনার বিদায়ের ঘণ্টা বেজে উঠবে। আর এজন্যই বেগম খালেদা জিয়ার জামিন দেয়া হচ্ছে না। দুই বছর যাবৎ মিথ্যা মামলা সাজিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে কারারুদ্ধ করে রেখেছে। তিনি জনগণের নেত্রী। বেগম খালেদা জিয়াকে কারারুদ্ধ করে অবাধে অবৈধ সরকার পরিচালনা করে যাচ্ছে। আমরা বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই। অন্যথায় তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

১২ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের গলিতে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সু-চিকিৎসার দাবীতে আয়োজিত মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অধ্যাপক মামুন মাহমুদ বলেন, বর্তমানে সর্বস্তরে দুর্নীতি ছেয়ে গেছে। দুর্নীতি, লুটপাট, সন্ত্রাস, ধর্ষণে ভরে গেছে দেশ। দেশের মানুষ আজ শান্তিতে নেই। পত্রিকায় দেখলাম ছাত্রলীগের সভাপতি ও সেক্রেটারীর জন্য গণভবনের দরজা বন্ধ হয়ে গেছে। এমনিভাবে দেশের মন্ত্রী এমপিদের দিন দিন সকল দরজা বন্ধ হয়ে যাবে। বর্তমান ক্ষমতাসীনরা ভূয়া মামলা করতে করতে অভ্যস্ত হয়ে গেছে। এজন্য নারায়ণগঞ্জেও তারা চুনপুটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে ওয়ারেন্ট জারি করেছে। আমরা এই মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানাই।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সহ সভাপতি মনিরুল ইসলাম রবি, নাসির উদ্দিন, নজরুল ইসলাম টিটু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম এ আকবর, মাহফুজুর রহমান হুমায়ুন, কোষাধ্যক্ষ বাছির উদ্দিন বাচ্চু, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোরশেদ আলম মোল্লা, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক নুরুন্নাহার বেগম, যুব বিষয়ক সম্পাদক আশরাফুল হক রিপন ও স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা সাখাওয়াত হোসেন মোল্লা সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।

সহ সভাপতি মনিরুল ইসলাম রবি বলেন, বর্তমান সরকার বার বার জনদাবীকে উপেক্ষা করছে। তারা জণগণের কথা চিন্তা না করেই টোল আদায়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আর এই টোল দিবে জনগণ। ভিআইপিদের কখনও টোল দিতে হয় না। বর্তমান সরকারের টাকার অভাব দেখা দিয়েছে। এই সরকারের কাছে কেউ নিরাপদ না। আমরা বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর