জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ আছে : সেলিম ওসমান


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:২৯ পিএম, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার
জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ আছে : সেলিম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান বলেন, আমি কোন জাতীয় নেতা হতে চাই না। আমি আমার এলাকার অসহায় মানুষের সেবা করতে চাই, বেকারত্ব দূর করতে চাই, ভবিষ্যত প্রজন্মকে শিক্ষিত করতে চাই যাতে করে তারা সুশিক্ষিত হয়ে আগামীতে নারায়ণগঞ্জ থেকে বাংলাদেশের দায়িত্ব নিতে পারে।

রোববার ১৫ ডিসেম্বর বেলা ১২টায় বন্দর খেয়াঘাট সংলগ্ন সুরুজ্জামান টাওয়ারে অনুষ্ঠিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় জেলা ও মহানগর জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে এ সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানটি জাতীয় পার্টির উদ্যোগে আয়োজন করা হলেও এক পর্যায় সেটি নির্দলীয় সংবর্ধনায় রূপ নেয়।

উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা দেখেছেন জাতীয় পার্টির মধ্যে একটি অস্থির সময় গেছে। যেটা এই নারায়ণগঞ্জের মাটিতে একটি মঞ্চ থেকেই সমাধান হয়েছে। তাই সকলকে বলবো আপনারা দলের ভেতরে কোন প্রকার কোন্দল রাখবেন না। এটা শুধু জাতীয় পার্টির জন্য নয় সকল রাজনৈতিক দলের উদ্দেশ্যেই বলছি। তবে আপনারা জামায়াত থেকে সাবধান থাকবেন। কোন অবস্থাতেই যেন জামায়াতের লোকজন আপনাদের সাথে ঢুকতে না পারে। তারা কিন্তু নিজেদের পরিবারের মাঝে অশান্তি সৃষ্টি করে দেয়।

তিনি আরো বলেন, দেশের কোথায় কি অবস্থা আমি জানি না। কিন্তু নারায়ণগঞ্জ জাতীয় পার্টির বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে। আমরা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার জন্য কাজ করছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০২১ ও ভিশন ২০৪১ বাস্তবায়নে নারায়ণগঞ্জ জাতীয় পার্টি কাজ করে যাচ্ছে।

সেলিম ওসমান বলেন, জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের মনে ক্ষোভ আছে আমি তাদেরকে সময় দেই না। কিন্তু আপনারা জানেন আমি দিনরাত কঠোর পরিশ্রম করে টাকা উপার্জন করে সেই টাকা জনগনের কল্যানে ব্যয় করি। আপনারা আমাকে দোয়া করবেন আমি অসহায় মানুষের জন্য কাজ করছি এবং আপনাদের সাথে নিয়েই তা করে যেতে চাই। আমি জাতীয় নেতা হতে চাই না আমার নারায়ণগঞ্জের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তনে কাজ করতে চাই। তবে আমি কথা দিচ্ছি জাতীয় পার্টির কর্মীদের মনের ক্ষোভ মেটানোর চেষ্টা আমি করবো। আগামী জানুয়ারী মাসের মধ্যে আমি একটি কার্যালয় করার চেষ্টা করবো সেখানে আপনাদের সাথে আমার দেখা হবে, এবং জানুয়ারী মাসের মধ্যেই কমিটির সম্মেলন হতে হবে। আপনারা যাদের মনোনীত করে দিবেন তারাই নেতৃত্বে আসবে অথবা আপনারা আমাকে দায়িত্ব দিলে আমি করবো।

তিনি আরো বলেন আমি খুব দ্রুতই জাতীয় পার্টির সকল নেতাকর্মীদের নিয়ে একত্রে বসবো বড় কোন ময়দানে। সেখানে অন্য দলের নেতাকর্মীরা চাইলেও আসতে পারেন। আমরা আলোচনা করবো নিজেদের ভুলত্রুটি নিয়ে। ভবিষ্যত পরিকল্পনা নিয়ে কথা বলবো। তবে সেখানে জামায়াতের কোন ঠাঁই নাই। আমাদের মাঝে যাতে কোন জামায়াত ঢুকে গিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে সেজন্য আপনারা সেখানে যেতে আগ্রহী হবে আপনারা একটি করে পাসপোর্ট সাইজ ছবি ও ৫০ টাকা করে দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করবেন। এটা শুধু জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা দিবেন ওই টাকা দিয়ে নারায়ণগঞ্জ জাতীয় পার্টির জন্য ফান্ড তৈরি করা হবে। কিন্তু আওয়ামীলীগ থেকে যারা যাবেন তাদের কোন টাকা দিতে হবেনা।

জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক আবুল জাহের এর সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মহানগর জাতীয় পার্টির আহবায়ক সানাউল্লাহ সানু, জেলা যুব সংহতির আহবায়ক রাজা হোসেন রাজু বন্দর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন, ধামগড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুম আহম্মেদ, মুছাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাকসুদ হোসেন।

অনুষ্ঠানে নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয় পার্টি, নারায়ণগঞ্জ মহানগর জাতীয় পার্টি, সিদ্ধিগঞ্জ থানা জাতীয় পার্টি, গোগনগর, বন্দর, কলাগাছিয়া, মুছাপুর, ধামগড়, মদনপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ নারায়ণগঞ্জ মহানগর কমিটি, জেলা স্বেচ্ছাসেবক পার্টি, জেলা যুবসংহতি, বন্দর উপজেলা ছাত্রসমাজ, সিটি কর্পোরেশনের ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইফউদ্দিন আহম্মেদ দুলাল প্রধান, ২৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আফজাল হোসেন, বন্দর থানা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খান মাসুদ, নাসিম ওসমান মডেল হাইস্কুল, বন্দর গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ, শেখ জামাল উচ্চ বিদ্যালয়, নাগিনা জোহা উচ্চ বিদ্যালয়, শামসুজ্জোহা এমবি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়, নাসিম ওসমান মডেল হাইস্কুল, গিয়াস উদ্দিন মডেল হাইস্কুল, বিশ্বনবী ইসলামিয়া মাদ্রাসা সহ বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে সংবর্ধনা জানানো হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর