ছাত্রলীগকে ড্যামকেয়ার এমপির


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:৪৩ পিএম, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, সোমবার
ছাত্রলীগকে ড্যামকেয়ার এমপির

নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের একজন প্রভাবশালী নেতা হলেন নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। টানা তিন মেয়াদ ধরে সংসদ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। সেই সাথে ছাত্রজীবনেও বেশ প্রভাবের সাথে রাজনীতি করে আসছেন। ছাত্রলীগে তার সর্বশেষ পদ ছিল কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। তবে নজরুল ইসলাম বাবু ছাত্রলীগের রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করলেও এবার সেই ছাত্রলীগকেই ড্যামকেয়ার ভাব দেখাচ্ছেন তিনি। কোন নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করেই তিনি উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক কমিটি ঘোষণা দিয়ে দিয়েছেন। যেখানে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ কিংবা জেলা ছাত্রলীগের কোন অনুমোদনের চিঠির দেখা মিলেনি।

সূত্র বলছে, ২০১৮ সালের ১০ মে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদনের কথা জানানো হয়। এতে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হিসেবে আজিজুর রহমান আজিজ ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আশরাফুল ইসমাইল রাফেলকে দায়িত্ব দেয়া হয়। ইতোমধ্যে জেলা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়ে গেছে। আগামী কিছুদিনের মধ্যেই হয়তো তাদের অধিনে থানা কমিটিগুলোও আসতে শুরু করবে। তবে তার আগেই নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু তার কর্তৃত্বের বলে আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করে দিয়েছেন।

জানা যায়, গত ৪ জানুয়ারী ১০ সদস্য বিশিষ্ট আড়াইহাজার থানা ছাত্রলীগের আহবায়ক কমিটি ঘোষণা হয়। কমিটিতে কাজী রাজীবুল ইসলাম জুয়েলকে আহবায়ক করা হয়েছে। আর অন্য সাত যুগ্ম আহবায়ক হলেন আল আমিন, জসিমউদ্দিন, এমদাদুল হক, নাহিদুর রহমান লাফিজ, মাহবুবুর রহমান সোয়েব, আরিফ হোসেন নির্জল ও আসিবুল হক আসিফ। সাধারণ সদস্য হলেন সাইফুল ইসলাম মোল্লা ও মোহাম্মদ আসাদ উল্লাহ।

নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বাবু বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা এমএম মাজহারুল হক অডিটরিয়ামে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এ কমিটি ঘোষণা দিয়েছেন। তবে সেখানে ছাত্রলীগের কোন কেন্দ্রীয় কিংবা জেলা পর্যায়ের কোন নেতার উপস্থিতি দেখা যায়নি। একই সাথে কমিটিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ কিংবা জেলা পর্যায়ের ছাত্রলীগের কোন অনুমোদনের কথা বলা হয়নি।

ছাত্রলীগ সূত্র বলছে, ছাত্রলীগের কোন কমিটি অনুমোদনের ক্ষমতা নেই স্থানীয় সংসদ সদস্যের। ছাত্রলীগের কোন পর্যায়ের কমিটি অনুমোদন করতে হলে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের অনুমোদন লাগবে। ফলশ্রুতিতে নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু থানা কমিটি অনুমোদনের ক্ষমতা রাখেন না।

এ বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আজিজুর রহমান জানান, আড়াইহাজার থানা ছাত্রলীগের কমিটি হইলে কমিটির কাগজ কোথায়। ছাত্রলীগের যতগুলো কমিটি হয় সেগুলোতে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষর থাকে। কিন্তু এখানে কার স্বাক্ষরিত কমিটি হয়েছে। আড়াইহাজার ছাত্রলীগের কমিটির ব্যপারে আমাদের সাথে আলোচনা হয়নি। এটা মৌখিক কমিটি হয়েছে, এই কমিটির কোন বৈধতা নেই। কেন্দ্রের সাথে আমাদের আলোচনা চলেতেছে, দেখা যাক কি সিদ্ধান্ত হয়।

এর আগে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাফায়েত আলম সানী ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান সুজনের সময় আড়াইহাজার ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়েছিল। সোখানেও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ ও জেলা ছাত্রলীগ নেতাদের কোন উপস্থিতি ছিল না। একই সাথে ঘোষিত ওই কমিটিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের স্বাক্ষরও ছিল না। নজরুল ইসলাম সে সময়ই তার কর্তৃত্বের বলে আড়াইহাজার থানা ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন দিয়েছিলেন। যার মাধ্যমে ছাত্রলীগকে ড্যামকেয়ার ভাব দেখানো হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
রাজনীতি এর সর্বশেষ খবর
আজকের সবখবর