পরকীয়ায় স্ত্রীর আত্মহননে আসামী হচ্ছেন স্বামী ছাত্রদল সহ সভাপতি!


স্টাফ করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৭:২৬ পিএম, ০৪ আগস্ট ২০২০, মঙ্গলবার
পরকীয়ায় স্ত্রীর আত্মহননে আসামী হচ্ছেন স্বামী ছাত্রদল সহ সভাপতি!

নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সিনিয়র সহ সভাপতি মোহাম্মদ উল্লাহর স্ত্রী শামীমা আক্তার (৩৩) আত্মহত্যা করেছে।

মৃত্যুর পর বিএনপির অনেকেই বিষয়টি নিজেদের মধ্যে মিমাংসা করার জন্য চাপ দিচ্ছে বলে জানা যায়। তবে নিহতের পরিবার চাচ্ছে মোহাম্মদ উল্লাহর বিরুদ্ধে আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলা করতে।

শরীরে আগুন ধরিয়ে দিলে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হলে সোমবার (৩ আগস্ট) ভোরে তিনি মারা যান।

নিহত শামীমা আড়াইহাজার উপজেলা বিএনপির সেক্রেটারী হাবিবুর রহমান হাবুর বোন। জেলা ছাত্রদলের সিনিয়র সহ সভাপতি মোহাম্মদ উল্ল্যাহ উপজেলার শিবপুর থানা সংলগ্ন হালিম মোক্তারের ছেলে।

হাবিবুর রহমান হাবু জানান, এর আগেও একাধিকবার পরকীয়া করায় মোহাম্মদ উল্লাহকে সতর্ক করেছিল শামীমা। এর আগেও ৩ বার আত্মহত্যার চেষ্টা করে স্বামীকে এ পথ থেকে ফেরাতে চায় শামীমা। সর্বশেষ ঈদের আগে ২৬ তারিখ রাতে সে স্বামীকে মালয়েশিয়া প্রবাসীর স্ত্রী রোজিনার ঘর থেকে পরকীয়া অবস্থা থেকে ধরে নিয়ে আসে। পরে স্বামীর সাথে এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে রাতে সে শরীরে দুইবার আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানের ডাক্তাররা জানায় তার দেহের ৪০ শতাংশ পুরোই পুড়ে গিয়েছিল। সোমবার ভোরে সে মারা যায়।

তবে মোহাম্মদ উল্ল্যাহ বলেন, অভিযোগ সত্য নয়। দুর্ঘটনাবশত তার দেহে আগুন লেগে যায়। পরে আমি দ্রুত তাকে হাসপাতালে ভর্তি করি

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, কেউ আমাদের এখানে লিখিত কোন অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর