ওলামাদের মহাসম্মেলনেও নির্বিকার নারায়ণগঞ্জের কাদিয়ানী সম্প্রদায়


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:৩৩ পিএম, ৩১ জানুয়ারি ২০২০, শুক্রবার
ওলামাদের মহাসম্মেলনেও নির্বিকার নারায়ণগঞ্জের কাদিয়ানী সম্প্রদায়

কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণা করার দাবীতে নারায়ণগঞ্জে বিশাল সমাবেশের ডাক দিয়েছেন আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফ্ফুজে খতমে নবুওয়্যাত বাংলাদেশ। ইতোমধ্যে ইসলামিক এই সংগঠনের আমির মাওলানা আহমদ শফি সমাবেশ সফল করতে উপস্থিত হয়েছেন। সমাবেশের আগেও দফায় দফায় নানা কর্মসূচি পালন করে কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণা করা হয় এবং লিফলেট বিতরণ করা হয়। তবে এর প্রেক্ষিতে নারায়ণগঞ্জের কাদিয়ানীরা একেবারে নির্বিকার রয়েছেন।

শুক্রবার ৩১ জানুয়ারী রাতে শহরের মিশনপাড়ায় ‘আহমদীয়া মুসলিম জামাত’ নামের কাদিয়ানি মসজিদের কর্র্তৃপক্ষর সাথে কথা হয়। তারা জানান, আমাদের অমুসলিম উল্লেখ করে যেসব বলা হচ্ছে তা একেবারে মিথ্যা ও বানোয়াট। হাদিস কুরআন অনুযায়ী হযরত মোহাম্মদ (সা:) কে খাতামুন নবী হিসেবে আমরা মান্য করি। নবীজীকে আমরা মান্য না করলে মাথায় টুপি দিয়ে কোন লাভ নাই। যারা আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করে তাদের সুবুদ্ধি হোক এটাই চাই। তাছাড়া মুসলিম ও অমুসলিম এটা বিচার করবে মহান আল্লাহ। এটা তিনিই ভাল জানেন।

আরো বলেন, আমাদের বিরুদ্ধে যে সমাবেশ করা হচ্ছে সে ব্যাপারে আমরা কোন ধরণের প্রতিবাদ করবোনা। কারণ নবীজীর শিক্ষা থেকে আমরা তেমনটি পাইনি। আমরা উল্টো তাদের জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া করবো। তবে আমাদের ব্যাপারে যেসব ভুল অভিযোগ তোলা হয়েছে এ ব্যাপারে কেউ জানতে চাইলে কিংবা বুঝতে চাইলে তাকে স্বাগত জানাই। আমাদের নিয়ে তৈরি হওয়া ভুল ভাঙিয়ে দিতে চাই। কিন্তু কোন সভা-সমাবেশ করে আমরা এসবের প্রতিবাদ করবোনা।

এদিকে ফতুল্লার সস্তাপুর কোতালেরবাগ মধ্যবর্তী এলাকায় অবস্থিত কাদিয়ানী মসজিদে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন বলেন, ফতুল্লায় কাদিয়ানীদের একটিই মসজিদ। এ মসজিদকে কেন্দ্র করে যাতে কোন অপ্রিতিকর ঘটনা না ঘটে এজন্য বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা রেখেছি। আশা করি কোন অপ্রিতিকর ঘটনা ঘটবেনা।

প্রসঙ্গত, কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণা করার দাবীতে ১ ফেব্রুয়ারী দুপুরে নারায়ণগঞ্জে কেন্দ্রীয় ঈদগাে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সেই সম্মেলন সফল করতে দেশবরেণ্য আলেম ওলামার বক্তব্য রাখলেও মূল আকর্ষণ থাকবেন আল্লামা আহমদ শফি। মূলত কাদিয়ানীদের নানা ব্যাপারে ঘোর অভিযোগ তুলে এর সমালোচনা করা হয়েছে। এমনকি ধর্মীয় নানা ইস্যুতে তাদের অমুসলিম হিসেবে উল্লেখ করা হচ্ছে।

আল্লামা শফি ছাড়াও থাকবেন হেফাজতে ইসলামীর মহাসচিব জুনায়েদ বাবুনগরী, হেফাজতে ইসলামীর ঢাকা মহানগরের সভাপতি নূর হোসাইন কাশেমী, সাইদুর রহমান, আব্দুল হামিদ, আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী, মিজানুর রহমান চৌধুরী, নূরুল ইসলাম জিহাদী, আবদুল্লাহ মুহাম্মদ হাসান, জুনায়েদ আল হাবীব, ইমাদুদ্দীন, আবদুল বারী, আশরাফ আলী, আবদুল কুদ্দুস, তাফাজ্জুল হক, নূরুল ইসলাম ওলিপুরী, মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, আশেকে এলাহী, আব্দুল হাই মেশকাত, মুহাম্মদ ইসহাক, মামুনুল হক, নজরুল ইসলাম কাশেমী, ওবায়দুর রহমান খাঁন নদভী, মাহবুবুল হক কাশেমী, শফিকুল ইসলাম, আবদুল আউয়াল, আবদুল কাদির, আবু তাহের জিহাদী প্রমুখ।

জানাগেছে, আরো অনেক আগে থেকেই কাদিয়ারী মতাদর্শীদের ধর্মীয় নানা কর্মকা- সহ তাদের আকিদা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন হেফাজতে ইসলামের মাওলানা। সর্বশেষ নবী হযরত মোহাম্মদ (সা:) সহ ইমাম মাহাদীকে নিয়েও নানা প্রকারের মিথ্যাচারের অভিযোগ তুলেন হেফাজতে ইসলামের মাওলানারা। এতে করে ক্ষুব্ধ হয়ে কাদিয়ানীদের অমুসলিম হিসেবে ঘোষণা দেয়ার আওয়াজ তোলেন। তবে এর প্রতিবাদে কাদিয়ারীরা একেবারে নিরব রয়েছেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর