মসজিদগুলোতে করোনা মুক্তির আহাজারি


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:২২ পিএম, ০৮ মে ২০২০, শুক্রবার
মসজিদগুলোতে করোনা মুক্তির আহাজারি রাশিদ চৌধুরীর তোলা ছবি

প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস লন্ডভন্ড করে দিয়ে যাচ্ছে জনজীবন। ব্যাহত হচ্ছে মানুষের স্বাভাবিক জীবন যাপন। দৈনন্দিন কাজের পাশাপাশি মানুষ ধর্মীয় কাজেও অংশগ্রহণ করতে পারছিলেন না। সেই সাথে ধর্মপরায়ণ মুসল্লিরা মসজিদে গিয়ে নামাজ করতে পারছিলেন না। বিশেষ করে রমজান মাসে মসজিদে না যাওয়ার ব্যাপার তাদের অনেক আক্ষেপের বিষয় ছিল।

তবে অবশেষে সরকারের পক্ষ থেকে স্বাস্থবিধি মেনে মসজিদে গিয়ে নামাজ আদায়ের অনুমতি মিলেছে। যদিও মসজিদে গিয়ে নামাজ আদায়ে নিষেধাজ্ঞা থাকায় রমজানে মাসের প্রথম জুমআর নামাজ বাড়িতেই আদায় করতে হয়েছিল। যেটা ধর্মপরায়ণ মুসল্লিদের জন্য পীড়াদায়ক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছিল।

অন্যান্য বছর রমজান মাসের প্রথম জুমআয় মসজিদগুলোতে মুসল্লিদের জায়গা সংকুলান না হলেও এবারের রমজানে মসজিদগুলো ছিল ফাঁকা। তবে সরকারি বিধি নিষেধ শিথিল হওয়ায় মসজিদগুলো আবার পূর্ণতা পেতে শুরু করেছে।

যার সূত্র ধরে নারায়ণগঞ্জের প্রত্যেকটি মসজিদেই মুসল্লিরা গিয়ে রমজান মাসের দ্বিতীয় জুমআর আদায় করেছেন। সেই সাথে ধর্মপরায়ণ মুসল্লিদেরও প্রশান্তি মিলেছে। পাশাপাশি প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তির জন্য তাদের কন্ঠে ছিল আমিন আমিন ধ্বনিতে আহাজারি। প্রায় নারায়ণগঞ্জ শহরের প্রত্যেক মসজিদে জুমআর নামাজের পর মুসল্লিরা তাদের রবের কাছে কাকুতি মিনতি করে প্রার্থণা করছেন।

ডিআইটি রেলওয়ে কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জুমআর নামাজের পর সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মোনাজাতে মুসল্লিদের মধ্যে ছিল আমিন আমিন ধ্বনিতে আহাজারি। সকলের চোখেই ছিল অশ্রু। সকলেই শিশুদের মতো ডুকরে কেঁদে তাদের রবের কাছে অপরাধের মার্জনা চেয়ে করোনা ভাইরাসের কবল থেকে বাঁচার জন্য প্রার্থনা করেছেন। মোনাজাত শেষেও অনেকের কান্না থামছিল না।

এর আগে গত ৬ এপ্রিল করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার হাত থেকে রক্ষা পেতে ঘরেই সব নামাজ আদায় করার নির্দেশনা দিয়েছিল ধর্ম মন্ত্রণালয়। ফলশ্রুতিতে নারায়ণগঞ্জের প্রায় সকল মসজিদগুলোতেই সরকারি নির্দেশনা অনুসরণ করে জামায়াতে নামাজ আদায় বন্ধ হওয়ার সাথে সাথে মসজিদে জুমআর নামাজ আদায়ও বন্ধ ছিল।

এরই মধ্যে গত ৬ মে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ গণমাধ্যমকে জানান, ৭ মে বৃহস্পতিবার জোহরের নামাজের পর থেকে সারাদেশের মসজিদে মুসল্লিরা নামাজ পড়ার সুযোগ পাবেন। তবে মসজিদে নামাজ পড়ার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য অধিদফতর নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাসহ ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে সুনির্দিষ্ট কিছু শর্তাবলী থাকবে। এসব শর্তাবলীর কথা সারাদেশের মসজিদ পরিচালনা কমিটিকে জানিয়ে দেয়া যাবে।

যার ধারাবাহিকতায় সারাদেশের মতো নারায়ণগঞ্জ মসজিদগুলোতেও জামায়াতে নামাজ আদায় করতে পারছেন মসুল্লিরা। সেই সাথে জুমআর নামাজও মসজিদে গিয়ে আদায় করতে পেরেছেন মুসল্লিরা।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর