‘বিশ্বকাপে’ প্রথম গোলদাতা নারায়ণগঞ্জের চুন্নুকে এএফসির শ্রদ্ধা


সংবাদ ও ছবি প্রথম আলো হতে নেওয়া | প্রকাশিত: ০৯:০৫ পিএম, ২৯ জুন ২০২০, সোমবার
‘বিশ্বকাপে’ প্রথম গোলদাতা নারায়ণগঞ্জের চুন্নুকে এএফসির শ্রদ্ধা

নারায়ণগঞ্জের আশরাফ উদ্দিন আহমেদ চুন্নুকে ছাড়া বাংলাদেশের ফুটবলের ইতিহাস লেখা যাবে না কখনোই। দেশের ফুটবলের অন্যতম সেরা এই ফরোয়ার্ডকে নিজেদের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে শ্রদ্ধা জানাল এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি)। এশিয়ার ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থাটি তাদের পোস্টে বাংলাদেশের জার্সিতে চুন্নুর তিনটি কীর্তির কথা উল্লেখ করেছে।

আশরাফ উদ্দিন চুন্নু আন্তর্জাতিক ফুটবলে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করেছেন ১৯৭৫ থেকে ১৯৮৫ সাল পর্যন্ত। দেশের ঘরোয়া ফুটবল ক্যারিয়ারের প্রায় পুরো সময়টাই আবাহনীর জার্সিতে কাটিয়ে দেওয়া চুন্নু অনেকবারই আন্তর্জাতিক ফুটবলে দেশকে উপহার দিয়েছেন স্মরণীয় মুহূর্ত। এএফসি তাদের পোস্টে চুন্নুর যে তিনটি কীর্তির কথা উল্লেখ করেছে সেগুলো হলো - বাংলাদেশের হয়ে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে প্রথম গোল, আন্তর্জাতিক ফুটবলে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে হ্যাটট্রিক আর এশিয়ান কাপেও দেশের হয়ে তাঁর গোল।

১৯৮৫ সালে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে খেলেছিল বাংলাদেশ। ’৮৬ মেক্সিকো বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ছিল ভারত, ইন্দোনেশিয়া ও থাইল্যান্ড। চুন্নু ১৯৮৫ সালের ৩০ মার্চ ঢাকায় ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটিতে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে গোল করেছিলেন। ৩৪ মিনিটে গোল করে ভারত এগিয়ে যাওয়ার পর ৪২ মিনিটে চুন্নুর গোলে সমতা ফিরিয়েছিল বাংলাদেশ। যদিও ৮৪ মিনিটে গোল খেয়ে ম্যাচটি ২-১ গোলে হেরে যায় লাল সবুজের দল।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে চুন্নুর গোলেই প্রথম জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ। ১৯৮৫ সালের ২ এপ্রিল ঢাকায় ইন্দোনেশিয়াকে ২-১ গোলে হারায় বাংলাদেশ। গোল দুটি করেন কায়সার হামিদ ও চুন্নু।

১৯৮৩ সালেই বাংলাদেশের হয়ে প্রথম হ্যাটট্রিকটি করেছিলেন চুন্নু। ঢাকায় প্রেসিডেন্ট গোল্ডকাপে নেপালকে ৪-২ গোলে হারায় বাংলাদেশ জাতীয় দল। সে ম্যাচে তিনি দেশকে উপহার দিয়েছিলেন প্রথম আন্তর্জাতিক হ্যাটট্রিক। ম্যাচে বাংলাদেশের অন্য গোলটি শেখ মোহাম্মদ আসলামের।

এএফসি এশিয়ান কাপেও বাংলাদেশের প্রথম গোলদাতা চুন্নু। ১৯৭৯ সালে ঢাকায় এশিয়ান কাপ বাছাইপর্বে আফগানিস্তানকে ৪-১ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। সে ম্যাচে চুন্নুর গোলটাই এশিয়ান কাপে বাংলাদেশের পক্ষে প্রথম গোল। এর পরের ম্যাচে কাতারের সঙ্গে ড্র করে ১৯৮০ সালে কুয়েতে হওয়া এশিয়ান কাপের মূল পর্বে প্রথম ও এখন পর্যন্ত একমাত্র বারের মতো খেলার যোগ্যতা অর্জন করে বাংলাদেশ। চুড়ান্ত পর্বেও উত্তর কোরিয়ার বিপক্ষে চুন্নুর আছে দারুণ এক গোল।

বাংলাদেশের ফুটবলে আশরাফ উদ্দিন চুন্নুর অবদান অবিস্মরণীয়। এশিয়ার ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা তাঁর সেই অবদানই স্মরণ করেছে শ্রদ্ধার সঙ্গে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর