সজল বাড়ৈ’র উপর রিয়াদ বাহিনীর হামলা, অভিযোগ অস্বীকার রিয়াদের

|| নিউজনারায়ানগঞ্জ২৪.নেট ০১:০১ এএম, ১ জানুয়ারি ২০১৫ বৃহস্পতিবার

সজল বাড়ৈ’র উপর রিয়াদ বাহিনীর হামলা, অভিযোগ অস্বীকার রিয়াদের
ছাত্র ফ্রন্ট জেলা আহ্বায়ক সজল বাড়ৈ শনিবার দুপুর ১টার দিকে সরকারী তোলারাম কলেজ ক্যাম্পাসে শিক্ষা দিবস কেন্দ্রিক প্রচারণার কাজে প্রবেশ করলে একদল ছাত্রলীগ সন্ত্রাসী তাকে ঘেরাও করে তার ব্যাগ থেকে প্রচার পত্র সহ সংগঠনের প্রয়োজনীয় সকল কাগজপত্র হাতিয়ে নেয়া এবং মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। একই সঙ্গে ছাত্র ফ্রন্ট তোলারাম কলেজের সংগঠক সুলতানা আক্তারকেও অকথ্য ভাষায় গালাগালের অভিযোগ রয়েছে। শনিবার প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে প্রগতিশীল ছাত্র জোট ও সিপিবি-বাসদের জেলা নেতৃবৃন্দ এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। তাদের দাবি সারাদেশের ন্যায় ছাত্রলীগের নামধারী তোলারাম কলেজের ছাত্র সংসদ দখলকারী ছাত্র সন্ত্রাসী স্বঘোষিত ভি.পি. রিয়াদ, রাকিবসহ তাদের কর্মী বাহিনীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে।   প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হয়, শনিবার বিকেলে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে প্রগতিশীল ছাত্র জোট একটি জরুরী বৈঠকের আয়োজন করে। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি জাহিদ সুজন, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক সুমাইয়া আক্তার সেতু, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আক্তার ও বেলাল হোসাইন। জরুরী বৈঠকে নেতৃবৃন্দ বলেন সরকারী তোলারাম কলেজে গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে (১) ছাত্র সংসদ নির্বাচন দিতে হবে (২) সকল ছাত্র সংগঠনের কর্মতৎপরতার সুযোগ থাকতে হবে (৩) ক্যাম্পাসে ছাত্র সংসদের নামে সন্ত্রাসী তৎপরতা বন্ধ করতে হবে। অনতিবিলম্বে এই সকল দাবী দাওয়ার উপর কলেজ কর্তৃপক্ষ যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ না করলে দুর্বার ছাত্র আন্দোলনের মাধ্যমে দাবী অদায়ের কার্যকর কর্মসূচী গ্রহণ করা হবে।   অপরদিকে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি সিপিবি’র জেলা সভাপতি হাফিজুল ইসলাম এবং বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ জেলা সমন্বয়ক নিখিল দাস এক যুক্ত বিবৃতিতে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার আহ্বায়ক সজল বাড়ৈ’র এর উপর ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসীদের হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।   বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরো বলেন শনিবার দুপুর ১টায় সজল বাড়ৈ’র উপর তোলারাম কলেজ ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসী রাকিবের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী হামলা চালায়। নেতৃবৃন্দ রাকিবসহ হামলাকারী সকল সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করার জন্য প্রশাসনের প্রতি দাবী জনান।   নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তোলারাম কলেজ ছাত্রলীগ নেতা হাবিবুর রহমান রিয়াদ প্রধান মারধরের বিষয়টি মিথ্যা বানোয়াট বলে দাবি করে নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, সজল বাড়ৌ নামে একজনকে চিনি সে তোলারাম কলেজের ছাত্র না। সে ছাত্র ফ্রন্ড নামে এমন একটা সংগঠনের জেলার সভাপতি। ছাত্রলীগের কোন নেতাকর্মী সজলকে মারধর করেনি। যদি ওই সজল অভিযোগ করে থাকে তাহলে শরীরের কোথায় মারধর করা হয়েছে তা জনগণকে দেখাক। স্বঘোষিত ভিপির অভিযোগ সম্পর্কে তিনি বলেন, আমি কলেজের ভিপি না। আমি তোলারাম কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি । যেটা জেলা ছাত্রলীগ আমাকে দায়িত্ব দিয়েছেন।  

বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও