ছাত্রদল-শিবির বিরোধ জিইয়ে রাখা হয়েছে

|| নিউজনারায়ানগঞ্জ২৪.নেট ০১:০১ এএম, ১ জানুয়ারি ২০১৫ বৃহস্পতিবার

ছাত্রদল-শিবির বিরোধ জিইয়ে রাখা হয়েছে
নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদল ও ইসলামী ছাত্র শিবিরের মধ্যে সৃষ্ট বিরোধ নিষ্পত্তি করতে পারেনি ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতারা। ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের সাথে বৈঠক করে তাদের বক্তব্য শুনলেও ইসলামী ছাত্র শিবিরের সাথে বৈঠকে করে কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি নেতারা। দু সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও এ বিরোধ না মিটিয়ে জিইয়ে রাখা রয়েছে। সেই সঙ্গে শিবিরের বিরুদ্ধে মামলা হলেও তার ইতিমধ্যে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।   নারায়ণগগঞ্জ জেলা ছাত্রদল ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের সংঘর্ষের ঘটনায় ছাত্রদলের নেতাদের কাছে ঘটনার বর্ণনা শুনেন জেলা বিএনপির নেতারা। নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারের মাসদাইরের বাসভবনে জেলা ছাত্রদল নেতাদের বক্তব্য শুনেন বিএনপির শীর্ষ নেতারা।   নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদল ও শিবিরের সংঘর্ষের ঘটনায় জোটের মধ্যে যে দূরত্ব সৃষ্টি হয়েছে এবং দুটি ছাত্র সংগঠনের নেতাদের সাথে মীমাংসার লক্ষেই এ শুনানী অনুষ্ঠিত হয়। পরে শিবিরের অভিযোগ অনুযায়ী জেলা জামায়াত ইসলামী কার্যালয় ভাঙচুর করা করেছে ছাত্রদল এমন অভিযোগের বিষয়টি দেখতে জামাত কার্যালয় পরিদর্শন করেছিলেন বিএনপির নেতারা। কিন্তু ইসলামী ছাত্র শিবিরের নেতাকর্মীদের সাথে বৈঠক হওয়ার কথা থাকলেও তা হয়ে ওঠেনি।   নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক মাসুকুল ইসলাম রাজীবসহ ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের বক্তব্য শুনেন জেলা বিএনপির প্রস্তাবিত কমিটির সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস, নগর বিএনপির সহ-সভাপতি সুরুজ্জামান, জেলা স্বেচ্ছা সেবকদলের আহ্বায়ক জাহিদ হাসান রোজেল, মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ, যুগ্ম আহ্বায়ক মাসুদ রানা, মহানগর ছাত্রদলের আহ্বায়ক মনিরুল ইসলাম সজল প্রমুখ। সংঘর্ষের ঘটনায় উপস্থিত জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক মাসুকুল ইসলাম রাজীব, যুগ্ম আহ্বায়ক শাহ ফতেহ মোহাম্মদ রেজা রিপন, আহত তোলারাম কলেজের সাবেক জিএস শাহআলম, দীপ্ত, সাহেদসহ হামলায় আহত সাংবাদিক ফারুক আহম্মেদ রিপন ঘটনার বিবরণ দেন।   রাজীব দাবি করে বলেছিলেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে ৩০ আগস্ট শিবির নেতাকর্মীরা শুধু ছাত্রদল নয় তারা মহানগর যুবদল ও শ্রমিকদলের নেতাকর্মীদের সাথে সংঘর্ষের জরিয়েছে। একই কথা বলেন মহানগর যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মাসুদ রানা ও সাংবাদিক ফারুক আহম্মেদ রিপন। শিবিরই ওইদিন উস্কানী দিয়েছে এমনটাই নেতাদের সামনে তুলেছে।   এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার নিউজ নারায়ণগঞ্জকে জানিয়েছিলেন, ছাত্রদল নেতাদের কাছ থেকে ঘটনার বিবরণ শোনা হয়েছে। পরে জামায়াত ইসলামী কার্যালয়ে যাওয়া হয়েছে সেখানে ভাঙচুর হয়েছে কিনা। আর ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের সাথে আলোচনা করতে সময় বেশি হওয়ার কারনে শিবিরের সাথে আলোচনা সম্ভব হয়নি। তবে দুএকদিনের মধ্যেই ছাত্র শিবিরের সাথে বসা হবে।   শুক্রবার তৈমুর আলম খন্দকার নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ছাত্রদলের সাথে প্রাথমিক আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয়েছে। দুএকদিনের মধ্যেই শিবিরের নেতাকর্মীদের সাথে বৈঠক করে আনুষ্ঠানিতা শেষ হবে। আশা করি বিষয়টি পরিস্কার হওয়ার পর সমাধান করা হবে।

বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও